fbpx
পশ্চিমবঙ্গ

বিশ্বভারতীকে শোকজ করল দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদ

নিজস্ব প্রতিনিধি, বিধাননগর: বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষকে পৌষ মেলায় দূষণ সংক্রান্ত আইন ভঙ্গের জেরে শোকজ নোটিশ পাঠাল দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদ। দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদ সূত্রে জানা গিয়েছে তারা বিশ্বভারতীর রেজিস্টারকে শোকজ নোটিশ পাঠিয়েছেন। এই শোকজ নোটিশ জানতে চাওয়া হয়েছে কেন পৌষমেলায় দূষণ ঠেকাতে সক্ষম হতে পারেনি বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ।

জানা গিয়েছে বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ শোকজ নোটিশের সঠিক জবাব দিতে না পারলে তাদের উপর ১০ লক্ষ টাকা জরিমানা করা হবে। দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদ সূত্রে জানা গিয়েছে, পৌষমেলায় তাদের প্রতিনিধি পরিদর্শন করে তারা দেখতে পান পৌষমেলায় অস্থায়ী খাবারের দোকানগুলিতে কয়লার উনুন জানানো হচ্ছে। এই জেরেই এই শোকজ নোটিশ বলে জানা গিয়েছে।

{আরও পড়ুন: আন্দোলন-সংগ্রামের মধ্য দিয়েই নতুন বছর শুরু করতে চলেছে বামেরা}

দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদের চেয়ারম্যান কল্যাণ রুদ্র বলেন, বিশ্বভারতীর সঙ্গে পৌষমেলার বিষয়ে বৈঠক হয়েছিল। দূষণের কথা ভেবেই এবার পৌষমেলার মেয়াদ কমানো হয়েছিল। বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ এ বিষয়ে রাজিও হয়েছিলেন। তাদের ওপর দায়িত্ব ছিল তারা পৌষমেলায় দূষণের বিষয় গুলি দেখবেন।

দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদের তরফ থেকে সমীক্ষা করা হলে দেখা যায় দূষণ রুখতে কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। যেহেতু পৌষমেলা কর্তৃপক্ষের অনুমতিক্রমে হয় তাই দূষণ নিয়ন্ত্রণের প্রাথমিক দায়িত্ব তাদের উপরে ছিল। সে কারণেই তাদের নোটিশ দেওয়া হয়েছে। উত্তর সঠিক না হলে জরিমানা করার ভাবনা নেওয়া হয়েছে। প্রাথমিকভাবে দেখা যায় অগ্নিনির্বাপণ ব্যবস্থা মজুদ ছিল না। পৌষমেলায় আসা দর্শনার্থীদের জন্য  উপযুক্ত বায়ো টয়লেট ছিল না। এছাড়াও মেলায় আগত খাবারের স্টল গুলিতে কয়লা ও কাঠের উনুনে রান্না করা হচ্ছিল। প্রসঙ্গত এ বছর থেকেই কয়লার উনুন থেকে নির্গত বায়ু দূষণের বিষয়ে কঠোর পদক্ষেপ নেওয়া শুরু করেছে দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদ।আগেভাগেই মেলা কমিটি থেকে এই বিষয়ে সচেষ্ট হতে বলা হয়েছিল।

bipasha

 

Related Articles

Back to top button
Close