fbpx
কলকাতাফুটবল

ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের আর্কাইভ উদ্বোধনে এসে আবেগতাড়িত মমতা, ফিরে গেলেন শৈশবের স্মৃতিচারণায়

যুগশঙ্খ, ওয়েবডেস্ক: মোহনবাগানের পর এবার ইস্টবেঙ্গল ক্লাবে গিয়ে আর্কাইভ উদ্বোধন করলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মমতা বলেন, “আমি ফুটবল ভালবাসি বলেই খেলা হবে স্লোগানটা দিয়েছিলাম। আমি রোজ বাড়িতে অন্তত ১০০ বার ফুটবলটাকে নাচাই। আমি খেলতে ভালবাসি। কিন্তু, মার খেতে খেতে আমার দুটো হাতেই অপারেশন হয়েছে। আমার দুটো পা অপারেশন হয়েছে। কোমরেও চোট আছে। কিন্তু, আমি মনের জোরে খেলাটাকে ভালবাসি এবং খেলি।”

শৈশবের কথা স্মরণ করে মমতা বলেন, “সুযোগ পেলেই ব্যাডমিন্টন খেলি। ছোটবেলায় গুলিও খেলেছি। লাট্টুও খেলেছি। কাবাডিও খেলেছি। আদি গঙ্গার ধারে সাঁতার কেটেছি। গাছে উঠেছি। ঘরের বাসন মাজা থেকে শুরু কাপড় কাচা, সবটাই যেমন ভালবাসি তেমন হারমোনিয়াম থেকে শুরু করে পিয়ানো থেকে শুরু করে বাঁশি থেকে শুরু করে তবলাও বাজিয়েছি’।

ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের ভূয়সী প্রশংসা করে মমতা বলেন, “’ইচ্ছে থাকলেই, উপায় হয়। নিজে আত্মবিশ্বাসী হলে তবেই অন্যকে হারানো যায়। ইস্টবেঙ্গলের আর্কাইভ দেখলাম। বিশ্বের অন্যতম সেরা আর্কাইভ। মুখে বলে কিংবা ভাষায় প্রকাশ করা যাবে না। সত্যিই এটা দর্শনীয় আর্কাইভ। আমি মনে করি, সিএবি থেকে শুরু করে প্রত্যেকটা ক্লাবের আর্কাইভ গড়া উচিত।”  মমতা বলেন, ‘মোহনবাগান ইস্টবেঙ্গলকে কেন্দ্র করে ছোট থেকেই যে বিতর্ক বিবাদ দেখেছি তা শুনে শুনেই বড় হয়েছি। আগে বাঙাল ঘটির লড়াই ছিল। কিন্তু এখন আর সে লড়াই নেই। এখন কে কত ভালো খেলবে, কে কতদূর যাবে তাই নিয়ে লড়াইটা সর্বক্ষণ টিকে থাকে।’

মহামেডানের প্রসঙ্গ উল্লেখ করলেন মুখ্যমন্ত্রী। পাশাপাশি ইস্টবেঙ্গলে যে মিউজিয়াম তৈরি হয়েছে তাতে যাতে ডার্বির সমস্ত পুঙ্খানুপুঙ্খ ইতিবৃত্ত থাকে তাও উল্লেখ করলেন মুখ্যমন্ত্রী। সবুজ মেরুনকে ৫০ লক্ষ টাকা অনুদানের কথা আগেই ঘোষণা করেছিলেন মোহনবাগান ক্লাবের নতুন তাবু উদ্বোধনে এসে। ইস্টবেঙ্গলের মিউজিয়াম উদ্বোধনে এসে মুখ্যমন্ত্রী ইস্টবেঙ্গল ও মহামেডানকে পঞ্চাশ লক্ষ টাকা অনুদান দেওয়ার জন্য ঘোষণা করলেন।

Related Articles

Back to top button
Close