fbpx
হেডলাইন
Trending

মোদির ঘুম কেড়ে নেব!

প্রধানমন্ত্রীর আমেরিকা সফর নিয়ে হুমকি নিষিদ্ধ জঙ্গি গোষ্ঠীর

নিজস্ব প্রতিনিধি:

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে প্রকাশ্যে হুমকি দিল নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন ‘শিখস ফর জাস্টিস’। প্রায় এক বছর ধরে যে কৃষক আন্দোলন চলছে তার পরিপ্রেক্ষিতেই এই হুমকি দেওয়া হয়েছে। উল্লেখ্য
জো বাইডেন আমেরিকার প্রেসিডেন্ট হওয়ার পর প্রথমবার সে দেশে যাচ্ছেন মোদি। আর দিল্লির উপকণ্ঠে কৃষক আন্দোলনের পক্ষ নিয়ে এবার আমেরিকায় বিক্ষোভ দেখানোর পরিকল্পনা করেছে খালিস্তান সমর্থক নিষিদ্ধ জঙ্গি গোষ্ঠী ‘শিখস ফর জাস্টিস’। প্রধানমন্ত্রীর আমেরিকা সফর কালে হোয়াইট হাউসের সামনে বিক্ষোভ দেখানোর পরিকল্পনা রয়েছে ওই জঙ্গি গোষ্ঠীর। শুধু তাই নয়, সংগঠনের প্রধান গুরুপতবন্ত সিং পান্নুন হুমকি দিয়ে বলেছে, “কৃষকদের বিরুদ্ধে দেশ জুড়ে সন্ত্রাস চালাচ্ছে কেন্দ্রীয় সরকার। তাই নরেন্দ্র মোদির রাতের ঘুম কেড়ে নেওয়া হবে।” স্বাভাবিকভাবেই বিষয়টি নিয়ে চিন্তিত নিরাপত্তা আধিকারিকরা।

২০১৯ সালের ১০ জুলাই ‘শিখস ফর জাস্টিস’ সংগঠনকে ইউএপিএ-আইনের আওতায় নিষিদ্ধ ঘোষণা করে ভারত সরকার। নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞরা বলছেন, রাজনৈতিক নয়, বরং সম্পূর্ণরকম ব্যবসায়িক ভিত্তিতে চলে এই সংগঠনটি। শিখ সম্প্রদায়ের মানুষের মধ্যে ‘শিখস ফর জাস্টিস’-এর প্রতি সমর্থন ক্রমশ কমছে, পাঞ্জাবী তরুণদের মধ্যেও প্রভাব প্রায় নেই বললেই চলে। গোয়েন্দা সূত্রে খবর, এই সংগঠনের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে পাকিস্তান, বিশেষ করে আইএসআই এজেন্টদের ছড়াছড়ি। ভারত-বিরোধী কার্যকলাপে আর্থিক মদত জোগায় এই নিষিদ্ধ সংগঠন। এমনকী নেটমাধ্যমে ভারত বিরোধী পোস্ট দিতে পারলে বিদেশে নাগরিকত্ব জোগাড় করে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে তরুণদের প্রভাবিত করে এই নিষিদ্ধ সংগঠন। এ সমস্ত কারণে সংগঠনটিকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।
২৪ সেপ্টেম্বর আমেরিকার প্রেসিডেন্টের আয়োজনে জাপানের প্রধানমন্ত্রী ইয়োশিহিদে সুগা ও অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসনের সঙ্গেই কোয়াড বৈঠকে হাজির থাকবেন প্রধানমন্ত্রী মোদিও। রাষ্ট্রপুঞ্জের সাধারণ অধিবেশনেও অংশ নেওয়ার কথা নরেন্দ্র মোদির।
এই পরিস্থিতিতে নিষিদ্ধ সংগঠনের হুমকিকে যথেষ্ট গুরুত্ব দিচ্ছেন নিরাপত্তা আধিকারিকরা। সূত্রের খবর, সম্প্রতি দিল্লিতে নিরাপত্তা আধিকারিকদের সঙ্গে গোপন বৈঠক সেরেছেন পাঞ্জাব পুলিশের উচ্চপদস্থ আধিকারিকরা। তাতে বিষয়টি নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়েছে।

Related Articles

Back to top button
Close