fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

তেল মিলে ক্ষমতার দখলদারি নিয়ে তৃণমূলের দুই গোষ্ঠীর মারপিট ও বোমাবাজি, গ্রেফতার ১১

প্রদীপ চট্টোপাধ্যায়, বর্ধমান:  রাইস ব্র্যান অয়েল মিলে ক্ষমতার দখলদারি নিয়ে মারপিট ও বোমাবাজির ঘটনায় শাসক দলের দুই গোষ্ঠির ১১ জনকে গ্রেপ্তার করলো পুলিশ ।শুক্রবার পূর্ব বর্ধমানের গলসির সিংপুরে মারপিট ও বোমাবাজির ঘটনা ঘটার পরেই গলসি থানার পুলিশ ধরপাকড় অভিযানে নামে ।উভয়পক্ষের দায়ের করা অভিযোগের ভিত্তিতে এলাকার বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালিয়ে পুলিশ তাদের গ্রেপ্তার করে । এই ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে গলসির রাজনৈতিক মহলে ।

পুলিশ জানিয়েছে, ধৃতরা হল ,শেখ মহম্মদ হোসেন, শেখ হাসিবুল রহমান, ইসলাম শেখ, রাজেশ মল্লিক, শুকুর শেখ, জিয়ারুল শেখ, শেখ খোকন, শেখ জিন্নাত আলি, শেখ মোজাফ্ফর হোসেন, শেখ মনোয়ার হোসেন ও শেখ মোজাফ্ফর ওরফে স্বপন। ধৃত সকলের বাড়ি গলসির সিংপুর গ্রামে। পুলিশের দাবি ঘটনাস্থল থেকে বেশ কয়েকটি লাঠি, লোহার রড, শাবল ও ৪টি কার্তুজের খোল উদ্ধার হয়েছে । সেগুলি পুলিশ বাজেয়াপ্ত করেছে। সুনির্দিষ্ট ধারায় মামলা রুজু করে পুলিশ শনিবার ধৃতদের পেশ করে বর্ধমান আদালতে । ভারপ্রাপ্ত সিজেএম রাজরষি মুখোপাধ্যায় ধৃতদের বিচার বিভাগীয় হেফাজতে পাঠিয়ে আগামী সোমবার ফের আদালতে পেশের নির্দেশ দিয়েছেন ।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, সিংপুর গ্রামে ভাসাপুল মোড়ের কাছে রয়েছে রাইস ব্রান অয়েল মিলটি ।শ্রমিকদের বোনাস দেওয়া নিয়ে সেখানে কয়েকদিন ধরেই অশান্তি চলছে। সেই অশান্তির মীমাংসার জন্য তৃণমূল পরিচালিত শ্রমিক সংগঠনের জেলার নেতৃত্ব মিল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনায় বসেন। তাতেও অশান্তি মেটে না । তারই মধ্যে বোনাসের ইস্যুকে সামনে রেখে শুক্রবার সকাল থেকে শাসক দলের দুই গোষ্ঠী মারপিটে জড়িয়ে পড়ে । অভিযোগ লাঠি, রড, শাবল, কাটারি ও আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে এক গোষ্ঠী অপর গোষ্ঠীর উপর হামলা চালায়। মারপিট চলাকালীন বোমাবাজির পাশাপাশি গুলিও চলে বলে অভিযোগ ।

এই ঘটনায় এলাকার লোকজন আতঙ্কিত হয়ে পড়েন । খবর পেয়ে গলসি থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। ঘটনা বিষয়ে শুক্রবারেই স্থানীয় শেখ মোজাফ্ফর হোসেন ও শেখ হাসিবুল রহমান গলসি থানায় পৃথক দু’টি অভিযোগ দায়ের করেন। তার ভিত্তিতে দুটি পৃথক মামলা রুজু করে পুলিশ ১১ জনকে গ্রেপ্তার করে।

গলসির তৃণমূল নেতৃত্ব যদিও সিংপুরের ঘটনা দলের গোষ্ঠীদন্দ বলে মানতে চাননি । গলসি ১ ব্লকে তৃণমূলের যুব সভাপতি পার্থ মণ্ডল এদিন বলেন, বোনাস নিয়ে মিল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে শ্রমিকদের অশান্তির কারণে এই ঘটনা ঘটেছে। এর সঙ্গে তৃণমূলের কোনও সম্পর্ক নেই।পার্থ বাবুর দাবি ,উদ্দেশ্য প্রণদিত ভাবে এই ঘটনার সঙ্গে তৃণমূলের নাম জড়ানো হচ্ছে।

Related Articles

Back to top button
Close