fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

স্বাস্থ্যবিধি মেনে ৮৪ রুটে নামল ১৬৩ বাস, আন্তঃজেলা এসবিএসটিসি বাস পরিষেবা

জয়দেব লাহা, দুর্গাপুর: দেশজুড়ে চলছে চতুর্থ পর্যায়ের লকডাউন। হু হু করে বাড়ছে কোভিড-১৯ আক্রান্তের সংখ্যা।  তারমধ্যেও শিথিল করা হয়েছে বেশকিছু বিধিনিষেধ। স্বাস্থ্য বিধি মেনে খুলছে দোকানপাট, শিল্পকারখানা।  মানুষের সুবিধার্থে এবার শুরু হল সরকারি বাস পরিষেবা। বুধবার থেকে রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় পর্যায়ক্রমে দক্ষিনবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহন সংস্থার বাস নামল রাস্তায়।

 প্রসঙ্গত, গত ২৪ মার্চ থেকে নোভেল করোনার সংক্রামক রুখতে দেশজুড়ে লকডাউন জারি হয়। সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখতে বন্ধ হয়ে যায় দোকান বাজার, কলকারখানা, পরিবহন ব্যাবস্থা। সম্প্রতি লকডাউনের চতুর্থ পর্যায় চলছে। তারমধ্যে সাধারন মানুষের সুবিধার্থে বেশ কিছুক্ষেত্রে লকডাউন শিথিল করা হয়েছে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে খুলছে দোকান। নির্দিষ্ট সংখ্যায় শ্রমিক কর্মচারী নিয়ে চালু হচ্ছে কলকারখানা। দোকান বাজার, শিল্পকারখানা খুললেও শ্রমিক, কর্মীদের যাতায়াতের সমস্যা তৈরী হয়েছে। এবার সাধারন মানুষের সুবিধার্থে বুধবার থেকে সরকারি নির্দেশ মেনে চালু হল দক্ষিনবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহন সংস্থার (এসবিএসটিসি) বাস পরিষেবা।

সংস্থার সূত্রে খবর, ভোর ৫টা থেকে দুপুর ২টা ও দুপুর ২টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত দুটি পর্যায়ে আপতত চালু হচ্ছে পরিষেবা। কোলকাতা, হাওড়া, সিউড়ি, বর্ধমান, আসানসোল, পুরুলিয়া, বাঁকুড়া, দীঘা সহ মোট ৮৪ রুটে ১৬৩ টি বাস নামানো হয়েছে। ভাড়া অপরিবর্তিত। পুরোনো ভাড়ায় থাকছে। এসবিএসটিসির এমডি গোদালা কিরন কুমার জানান,” সমস্ত বাস স্যানিটাইজেশন করা হচ্ছে। সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে ২০ জনের মধ্যে অর্থাৎ ৫০ শতাংশ সিটিং ক্যাপাসিটি যাত্রী চাপানো হবে। পাশাপাশি স্বাস্থ্যবিধি মেনে যাত্রীদের মুখে মাস্ক বাঁধতে হবে। একই সঙ্গে বাসে ওঠার আগে যাত্রী স্যানিটাইজ ব্যাবস্থা রাখা হয়েছে।” তিনি আরও বলেন,” এদিন বাস পরিষেবায় দুপুর পর্যন্ত ভাল সাড়া পাওয়া গেছে।”

Related Articles

Back to top button
Close