fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

সবুজ শূণ্যতা পূরণ, বজ্ররোধে রোপিত হবে ১৭ লক্ষ নারকেল গাছ

ভীষ্মদেব দাশ, খেজুরি: আজ ৫ই জুন, বিশ্ব পরিবেশ দিবস। সাম্প্রতিক ঘূর্ণিঝড় আমফানের তাণ্ডবে পশ্চিমবঙ্গের উপকূলবর্তী অঞ্চলগুলিতে গাছপালা লন্ডভন্ড হয়ে গিয়েছে। ধ্বংস হয়েছে সবুজ। দূষণের পাশাপাশি বজ্রাঘাতের পরিমাণ বাড়তে পারে বলে পরিবেশবিদরা আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন। প্রতিবছরই গোটা রাজ্যে বজ্রপাতে প্রাণহানির ঘটনা প্রায় শোনা যায়। আমফানের তান্ডবে নষ্ট হয়েছে বহু বড় বড় গাছ।ফলে কমেছে গাছের সংখ্যা। রাজ্য পরিবেশ দপ্তরের পরিকল্পনায় গোটা রাজ্যে ৫কোটি গাছ লাগানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য বন দপ্তর। যার মধ্যে বজ্ররোধে গোটা রাজ্যে প্রায় ১৭ লক্ষ নারকেল গাছ লাগানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে পরিবেশ দপ্তর।

আরও পড়ুন: বিষাক্ত পার্থেনিয়ামে ঢেকেছে রাস্তার দু’ধার, ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার আশঙ্কা এলাকাবাসীর

নারকেল গাছ একদিকে যেমন ভূমিক্ষয় রোধ করে তেমনি বজ্রপাত রোধ করতে। মানুষ ও প্রাণীদের প্রাণহানি রক্ষা করতে মুখ্য ভূমিকা পালন করে। আজ পরিবেশ দিবসে রাজ্যের ৩৪১ টি ব্লকে মোট ১,৭০৫,০০০ টি নারকেল গাছ রোপন করা হবে। রাজ্যের সমস্ত ব্লকগুলিতে পাঁচ হাজার করে নারকেল গাছ রোপন করার কাজ শুরু হবে। আমফান তান্ডবে ভেঙে পড়েছে বহু প্রাচীন গাছ। তাই সবুজ বিষণ্ণতাকে দুর করতে নারকেল গাছের পাশাপাশি নিম, বট, অশথ্ব, বিললো, হেজ ম‍্যাপেলস, বোর ওক প্রভৃতি গাছ লাগানোর পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে পরিবেশ দপ্তরের উদ্যোগে। এছাড়াও পথে-ঘাটে শোভা বাড়ানোর জন্য জারুল, বকুল, নিম, দেবদারু প্রভৃতি গাছও লাগানো হবে। রাজ‍্যের পরিবেশ মন্ত্রী সৌমেন মহাপাত্র বলেন, “রাজ‍্যের ৩৪১টি ব্লকে মোট ১কোটি ৭লক্ষ ৫হাজার টি নারকেল গাছ লাগানো হবে।

Related Articles

Back to top button
Close