fbpx
গুরুত্বপূর্ণদেশহেডলাইন

বাদল অধিবেশনের পরেই করোনায় আক্রান্ত ১৭ জন সাংসদ

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: বাদল অধিবেশনের পরেই করোনায় আক্রান্ত হলেন ১৭ জন সাংসদ। এদের মধ্যে ১২ জন বিজেপি সাংসদ। ২ ‌জন ওয়াইএসআর কংগ্রেসের সদস্য। বাকি তিনজনের মধ্যে ১ জন শিবসেনার সাংসদ। ১ জন আরএলপি ও ১ জন ডিএমকে–র সদস্য। সাংসদ মীনাক্ষী লেখি, অনন্ত কুমার হেগড়ে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। সাংসদ প্রবেশ সাহিব সিংহও আক্রান্ত হয়েছেন করোনায়।

কড়া সুরক্ষাবিধির মধ্যে সোমবার সংসদে বাদল অধিবেশন শুরু হয়। করোনা সুরক্ষার কথা মাথায় রেখেই চলতি অধিবেশনে সাংসদদের দেওয়া হয়েছে বিশেষ কিট। ডিআরডিও অর্থাৎ ডিফেন্স রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশন-এর তরফে এই কিট তৈরি করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। এইবছর সামাজিক দূরত্ব মেনেই দুই কক্ষে সাংসদেরা বসছেন। সাংসদদের সামনে স্বচ্ছ প্রাচীর দিয়ে ঘেরা থাকছে। বিতর্কের সময় মুখের ড্রপলেট ছড়িয়ে না পড়ার কারণে এই প্রাচীর দেওয়া হয়েছে। বিতর্কের সময় কোনও সাংসদ উঠে দাঁড়ালেই অধ্যক্ষ ওম বিড়লা বসে কথা বলার জন্য অনুরোধ করেন। তবু অধিবেশনের প্রথম দিনই ১৭ জন সাংসদের করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসে। ১৩ এবং ১৪ সেপ্টেম্বর পার্লামেন্ট হাউসে করোনা পরীক্ষা করানো হয়। সেই রিপোর্টেই ধরা পড়ে, ১৭ জন সাংসদ করোনা আক্রান্ত হয়েছে।

[আরও পড়ুন- সাংসদদের জন্য বিশেষ কিট, করোনা স্বাস্থ্যবিধি মেনেই চলবে বাদল অধিবেশন]

এই বছর সাংসদদের দেওয়া হয়েছিল বিশেষ কিট। এই কিটের প্রত্যেকটিতে রয়েছে ৪০টি করে ডিসপোজেবল মাস্ক, ৫টি করে এন-৯৫ মাস্ক, ২০ বোতল স্যানিটাইজার। যার প্রত্যেকটিতে ছিল  ৫০ মিলিলিটার করে স্যানিটাইজার। থাকছে মুখ মোছার জন্য হার্বাল স্যানিটাইজেশন ওয়াইপস ও শরীরে ইমিউনিটি বাড়াতে থাকছে টি-ব্যাগ। এছাড়াও কিটে থাকছে ফেস শিল্ডস, ৪০ জোড়া গ্লাভস, দরজা খোলা ও বন্ধের জন্য একটা টাচ-ফ্রি হুক। তবু অধিবেশনের প্রথম দিনই ১৭ জন সাংসদের করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসে।

 

Related Articles

Back to top button
Close