fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণহেডলাইন

১০ লক্ষ টাকায় চিতাবাঘের চামড়া বিক্রি করতে গিয়ে কুঁদঘাটে বন দফতরের ফাঁদে ধৃত ২

অভীক বন্দ্যোপাধ্যায়, কলকাতা: করোনাতেও বন্ধ হয়নি চোরাশিকারিদের কারবার। রীতিমত ক্রেতা সেজে গোপনে চিতা বাঘের চামড়া বিক্রি করতে আসা দুই ব্যক্তিকে হাতেনাতে পাকড়াও করলেন ওয়াইল্ড লাইফ ক্রাইম কন্ট্রোল ব্যুরাে ও ওয়াইল্ড লাইফ ক্রাইম কন্ট্রোল সেলের কাছে। সোমবার সকালে কুঁদঘাটে আসা ২ জনকে ওই  চিতা বাঘের চামড়া উদ্ধারসহ গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বাজেয়াপ্ত হয়েছে দুটি বাইক। ধৃত দুই ব্যক্তিকে সল্টলেকের বন দফতরের অফিসে নিয়ে আসা হয়েছে বলে খবর।
 বনদফতরের কাছে গােপন সূত্রে আগেই খবর ছিল চিতাবাঘের চামড়া বিক্রির জন্য ক্রেতা খুঁজছে দুই ব্যক্তি। তারা দুজনেই পেশায় গাড়িচালক বলে জানা গিয়েছে। ক্রেতা সেজে ওই দুই ব্যক্তির সঙ্গে যােগাযােগ করেন তদন্তকারী আধিকারিকরা। ১০ লক্ষ টাকার বিনিময়ে ঠিক হয় সোমবার টালিগঞ্জ থেকে কুঁদঘাটের মাঝে একটি জায়গায় টাকার বদলে চিতাবাঘের চামড়া দেওয়া হবে। তবে পুরো টাকাটাই হাতে হাতে দিতে হবে।
সেইমতো সোমবার সকালে বাইকে করে ওই নির্দিষ্ট এলাকায় আসে দুই ব্যক্তি। একটি ব্যাগে করে চিতাবাঘের চামড়া নিয়ে এসেছিল। টাকা দেওয়ার আগে ছদ্মবেশী  বন দফতরের আধিকারিকরা চিতা বাঘের চামড়া দেখতে চান। তারা এর পর ব্যাগ খুলে চামড়া দেখানাের সময় একেবারে হাতেনাতে ওই দু’জনকে পাকড়াও করেন তদন্তকারী আধিকারিকরা।  কিন্তু ওই দুজন কোথা থেকে এই বহুমূল্যের চিতাবাঘের চামড়া পেলেন এবং তা বিক্রি করে তারা কাকে টাকা পৌঁছে দিতেন, এই পাচার চক্রের সঙ্গে আর কে কে জড়িয়ে রয়েছে, ধৃত দুজনকে তা জেরা জানার চেষ্টা করছেন বন দফতরের অফিসাররা।

Related Articles

Back to top button
Close