fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

আক্রান্তের সুস্থ হয়ে বাড়ি ফেরার পর, এবার মারণ ভাইরাসের কবলে পরিবারের ২ শিশু

অলোক কুমার ঘোষ, ব্যারাকপুর: যত দিন যাচ্ছে ততই করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে উত্তর ২৪ পরগনা জেলায়। উত্তর ২৪ পরগনা জেলার মোহনপুর গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় নতুন করে ফের করোনা সংক্রমণের খবর পাওয়া গেছে। এবার করোনায় সংক্রমিত হয়েছে দুই শিশু। তাদের বয়স যথাক্রমে আড়াই বছর ও সাড়ে তিন বছর। ওই দুই শিশুকে ও তাদের মা’কে রাজারহাটের করোনা হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছে। সেখানেই চিকিৎসাধীন রয়েছেন তারা।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, যে দুই শিশু করোনায় সংক্রমিত হয়েছে, তাদের পরিবারের এক সদস্য সম্প্রতি করোনায় আক্রান্ত ছিলেন। তবে তাকে সুস্থ অবস্থায় সম্প্রতি ছুটি দিয়ে দেওয়া হয়। তিনি বাড়ি ফিরে আসেন। এরপর ওই পরিবারের বাকি সব সদস্যদের নতুন করে করোনা পরীক্ষা করানো হয়। তাতেই করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে দুই শিশুর। ওই এলাকাটিকে ফের রেড জোন হিসেবে শনাক্ত করে প্রশাসন। ওই এলাকার বাসিন্দারা এই ঘটনায় নতুন করে আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন।

এলাকার বাসিন্দারা বলেন, “যখন এখানকার একজন করোনা আক্রান্ত হওয়ার পর পুনরায় সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে আসেন, তখন আমরা নিশ্চিন্ত হই। কিন্তু ফের শুনলাম ওই একই পরিবারের দুই শিশু করোনা পজিটিভ। ফলে এই খবরে আতঙ্ক সৃষ্টি হয়েছে এই অঞ্চলে। এদিকে এখানে প্রচুর দিন মজুরের বাস। আমরা ভেবেছিলাম লকডাউন শিথিল হওয়ায় আমরা কাজে ফিরতে পারব। কিন্তু প্রশাসন এই এলাকাকে আবার রেড জোন করে দিল।আমাদের কাজে ফেরার সম্ভাবনা আটকে গেল।

” এদিকে ঘটনার পর বড় কাঠালিয়া এলাকা পরিদর্শন করেন মোহনপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের উপ প্রধান নির্মল কর। তিনি বলেন, “যে ওষুধ ব্যবসায়ী মাসের শুরুতে করোনা আক্রান্ত হয়ে রোগ মুক্ত হয়ে বাড়ি ফিরেছেন, তার পরিবারের দুই শিশু করোনা আক্রান্ত হয়েছে । তাদের রাজারহাটের করোনা হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছে। ওই পরিবারের সদস্যদের ফের কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে পাঠানো হয়েছে। তবে এই এলাকায় গরিব মানুষের বসবাস বেশি । অনেকেই কাজে ফিরতে চাইছে। তবে তাদের বিষয়ে আমি ব্যক্তিগতভাবে সিদ্ধান্ত নিতে পারব না। প্রশাসন ঠিক করবে ওই এলাকার বাসিন্দারা কিভাবে থাকবেন। এই বিষয়ে ফের পঞ্চায়েত আমরা বৈঠকে বসব ।”

এদিকে প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, অযথা আতঙ্ক নয়। প্রশাসন এলাকাবাসীর পাশে থাকবে।

Related Articles

Back to top button
Close