fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

পাচার করতে এসে গ্রামবাসীদের হাতে গণধোলাই, ধৃত ২  

মিল্টন পাল, মালদা: নাম্বার প্লেটহীন মোটর বাইকে করে হেরোইন পাচার করতে এসে গ্রামবাসীদের হাতে ধরা পড়ল দুই পাচারকারী। ঘটনায় এলাকার বাসিন্দারা ওই দুই যুবককে গণপ্রহার দেয়। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার মালদা থানার বালা সাহাপুর এলাকায়। ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে মালদা থানার পুলিশ গিয়ে ওই দুই যুবককে উদ্ধার করে নিয়ে যায়। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই দুই যুবক শুক্রবার দুপুরবেলা বালা সাহাপুর এলাকায় নাম্বার প্লেট হীন একটি মোটর বাইক নিয়ে মালদা বুলবুলি রাজ্য সড়কের পাশে সন্দেহ ভাজন ভাবে ঘোরাঘুরি করছিল। সেই সময় এলাকার বাসিন্দারা ওই দুই যুবককে আটক করে। এরপর তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে বিভিন্ন রকম অজুহাত দেখাতে থাকে। তার কাছ থেকে উদ্ধার হয় হেরোইনের প্যাকেট। এরপরই ওই দুই যুবককে ধরে গণপ্রহার শুরু করে এলাকার বাসিন্দারা।

বাসিন্দাদের অভিযোগ, দিনের পর দিন এই এলাকায় মাদক হেরোইন বিক্রি হচ্ছে। আর যার ফলে একদিকে নষ্টের পথে চলে যাচ্ছে যুবকরা। নেশায় আসক্ত হচ্ছে এলাকার বহু যুবক। পাশাপাশি এই এলাকার আম বাগান গুলিতে রাতের অন্ধকার নামতেই জুয়া মদ ও হেরোইনের মত কারবার ও নেশায় আসক্ত হচ্ছে আট থেকে আশি। বিষয়টি স্থানীয় প্রশাসন ও পুলিশকে জানালেও কোন ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে না। আর যার ফলে দিনের পর দিন এই কারবার ও বৃদ্ধি পাচ্ছে। এই ঘটনার ফলে এলাকায় একদিকে যেমন নষ্ট হচ্ছে পরিবেশ অন্যদিকে নেশায় আসক্ত হচ্ছে আট থেকে আশি মানুষেরা।এদিন বাধ্য হয়ে এলাকার বাসিন্দারা ওই দুই যুবককে মাদক বিক্রির অভিযোগে আটকাই। ঘটনার খবর পুলিশকে দেওয়া হলে,পুলিশ এসে ওই দুই যুবককে ও বাইকটিকে উদ্ধার করে নিয়ে যায়।

 

জেলা বিজেপির সহ সভাপতি অজয় গাঙ্গুলী বলেন, জেলার বিভিন্ন জায়গায় এই ধরনের মাদক বিক্রিতে প্রত্যক্ষ মদত রয়েছে পুলিশের। আর যার ফলে মাদক কারবারি রমরমা চলছে জেলায়। ফলের যুবক থেকে এলাকার পরিবেশ নষ্ট করছে তারাই। আমাদের দাবি অবিলম্বে এই ধরনের কারবারীদের বিরুদ্ধে কঠোর শাস্তি মূলক ব্যবস্থা নিতে হবে। না হলে মানুষকে নিয়ে পথে নামবে বিজেপি। জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের কো-অর্ডিনেটর দুলাল সরকার বলেন, মালদা থানা এলাকায় মাদক বিক্রির অভিযোগে দুই জনকে গ্রেফতার করেছে মালদা থানার পুলিশ। পুলিশকে বলব ঘটনা তদন্ত তদন্ত করে তাদের বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নিতে।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, তদন্তের স্বার্থে ধৃতদের নাম এখনই কিছু বলা যাচ্ছে না। দুই যুবককে গ্রেফতার করা হয়েছে। এর পিছনে কে বা কারা রয়েছে বা এই হেরোইন গুলি তারা কোথা থেকে সংগ্রহ করেছিল কি কারণে সেখানে নিয়ে এসেছিল তার তদন্ত শুরু হয়েছে।

 

Related Articles

Back to top button
Close