fbpx
কলকাতাহেডলাইন

রাজ্যে ২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত ৩১৮৫, মৃত ৬০, সুস্থ ২৯৪৬

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ফের রাজ্যে আরও কিছুটা কমল দৈনিক সুস্থতার সংখ্যা। ফের রাজ্যে ২৪ ঘন্টায় নতুন সংক্রমণের হদিশ ৩১৮৫ জনের, মৃত্যু ৬০ জনের এবং সুস্থ হয়েছেন ২৯৪৬ জন। সুস্থতার হার খুব সামান্য বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৮৭.৬৭ শতাংশে। শনিবারের বুলেটিন অনুযায়ী, ২৪ ঘন্টায় ৩১৮৫ জন নতুন আক্রান্তে রাজ্যে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ২৪৭৪২৫ জন। এদিন আরও ৬০ জনের মৃত্যু হওয়ায় রাজ্যে সরকারি হিসেবে মোট করোনায় মৃত্যু ৪৭৮১ জনের। ২৪ ঘন্টায় আরও ২৯৪৬ জন সুস্থের হিসেব ধরলে মোট সুস্থ হলেন ২১৬৯২১ জন।

এদিনও অন্যান্য জেলার সঙ্গে কলকাতায় ৫৭৯ জন, উত্তর ২৪ পরগনাতে ৫৪৫ জন, দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ২৩২ জন, হাওড়ায় ১৯৭ জন, হুগলিতে ১৯৬ জন, নদিয়ায় ১১৭ জন,
দার্জিলিংয়ে ১০৯ জন, বাঁকুড়ায় ১০২ জন সুস্থ হয়েছেন। এই মুহূর্তে রাজ্যে করোনা আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন ২৫৭২৩ জন। এ দিন হাসপাতালে রোগীর সংখ্যা বেড়ে গিয়েছে ১৭৯ জন।
বুলেটিনে আরও জানানো হয়েছে, এদিন পর্যন্ত রাজ্যের ৮০ টি ল্যাবে মোট করোনা টেস্ট করা হল ৩০৯৮৬৫৭ জনের। যার মধ্যে ২৪ ঘন্টায় রাজ্যে করোনা পরীক্ষা হয়েছে ৪৩৬১৮ জনের। রাজ্যের ৯২ টি কোভিড ডেডিকেটেড হাসপাতাল, ৩৭ টি সরকারি এবং ৫৫ টি বেসরকারি হাসপাতালে মোট ১২৬৭৫ টি বেড আছে, আইসিইউ পরিষেবা রয়েছে ১২৪৩ জনের। ভেন্টিলেটর রয়েছে ৭৯০ টি। তার মধ্যে মাত্র ৩৬.০৯ শতাংশ রোগী ভর্তি আছেন।

সরকারি ৫৮২ টি কোয়ারেন্টাইনে এখন রয়েছেন ২৪৪৪ জন। ছেড়ে দেওয়া হয়েছে ১০৭৬৯৭ জনকে। হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন ৭৮১০৩ জন। ছেড়ে দেওয়া হয়েছে ৬০৬৭২৮ জনকে। রাজ্যের ২০০ টি সেফ হোমে ১১৫০৭ টি বেড রয়েছে এবং তাতে ১৪২২ জন রোগী রয়েছেন।

এছাড়া এদিনের মৃত্যু হিসেবে বুলেটিনে জেলাওয়াড়ি তথ্যে জানানো হয়েছে, এদিন রাজ্যে মৃত্যু হয়েছে ৬০ জনের। এ দিন কলকাতায় ১৭ জন, দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ১০ জন, হাওড়ায় ৯ জন, পশ্চিম মেদিনীপুরে ৭ জন, উত্তর ২৪ পরগনায় ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া বীরভূম, পূর্ব মেদিনীপুর, পূর্ব বর্ধমান ও হুগলিতে ২ জন করে আর আলিপুরদুয়ার দক্ষিণ দিনাজপুর নদীয়া ও ঝাড়গ্রামে ১ জন করে মোট আরও ১২ জন করোনা রোগীর মৃত্যু হয়েছে।

এছাড়া এদিন অন্যান্য জেলার সঙ্গে উত্তর ২৪ পরগনায় ৬৭০ জন, কলকাতায় ৬১৫ জন, দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ২১১ জন, হাওড়ায় ১৮৯ জন, হুগলিতে ১৬৪ জনের, পূর্ব মেদিনীপুরে ১৪০ জন, পশ্চিম মেদিনীপুরে ১২৯ জন, নদীয়া ১১৩ জন ও পুরুলিয়ায় ৯০ জনের উল্লেখযোগ্য হারে সংক্রমণ বৃদ্ধি পেয়েছে। এদিনও সংক্রমণ বেড়েছে রাজ্যের সব জেলাতেই।

Related Articles

Back to top button
Close