fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

মহিলাদের প্রলোভন দেখিয়ে সোনা হাতানোর অভিযোগে গ্রেফতার ৪

কৃষ্ণা দাস, শিলিগুড়ি: প্রলোভন দেখিয়ে মহিলাদের থেকে সোনা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে চার দুষ্কৃতীকে গ্রেফতার করল শিলিগুড়ি মেট্রোপলিটন পুলিশের শিলিগুড়ি থানার সাদা পোষাকের পুলিশ। শনিবার শিলিগুড়ি থাানয় এক সাংবাদিক সম্মেলন করে একথা জানান ডিসিপি ইস্ট জয় টুডু। ধৃতদের নাম কিশোর রায়, অর্জুন মালি, নারু মালি ও রাজু শাহ। রাজু শাহ শিলিগুড়ির বাসিন্দা বাকি তিনজন বিভিন্ন জায়গা যাযাবরের মতো ঘুরে বেড়ায় এর আগে তারা মালদা জেলার বিভিন্ন জায়গায় ছিল। ধৃতদের শুক্রবার শিলিগুড়ি আদালতে তুলে চারদিনের পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়েছে।

জানা গিয়েছে, দুষ্কৃতীরা শিলিগুড়ি মহকুমার মাটিগাড়ার আমতলা এলাকায় একটি বাড়িতে ভাড়া থাকত। তারা শিলিগুড়ি শহরে এসে মহিলাদের নানান ছলনায় প্রলোভন দেখাত। নকল সোনার টোপ দিয়ে আসল সোনা হাতিয়ে নিত। এছাড়া তারা অসহায় বাড়ি যাবার মতো বাসভাড়া না পয়সা নেই বলে মহিলাদের কাছ থেকে সহানুভূতি আদায় করে নানা চলে ফাঁদে ফেলে সোনা নিয়ে চম্পট দিল। শিলিগুড়ি থানায় ইতিমধ্যে তিনজন মহিলা অভিযোগ জানিয়েছেন। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তে নেমে শিলিগুড়ি থাানর সাদা পোষাকের পুলিশ তিনজন দুষ্কৃতীকে মাটিগাড়া থেকে গ্রেফতার করে। তাদের জিজ্ঞাসাবাদে একজন সোনা ব্যবসায়ীর নাম উঠে আসে যার কাছে তারা চোরাই সোনা বিক্রি করত। তাকেও গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

তাদের কাছ থেকে উদ্ধার হয়েছে একটি মোবাইল ফোন। ৭০ গ্রাম সোনা। কিছু নকল সোনা। একটা খেলনা টাকার বান্ডিল। এছাড়া একটি স্কুটি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আরও কয়েকটি কেস রয়েছে। এই গ্যাংটি বলশ কিছুদিন ধরে শিলিগুড়িতে মহিলাদের প্রলোভন দেখিয়ে রীতিমতো বোকাবানিয়ে সোনা হাতিয়ে নিত বলে অভিযোগ। তাদের পুলিশ হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করে আর কারা এই ঘটনার সাথে জড়িত তা জানার চেষ্টা চালাচ্ছে পুলিশ। এদিনের সাংবাদিক সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন এসিপি ইস্ট স্বপণ কুমার সরকার, শিলিগুড়ি থানার আইসি সুদীপ চক্রবর্তী সহ শিলিগুড়ি থানার সাদা পোষাকের পুলিশ।

Related Articles

Back to top button
Close