fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

গুরুং শিবিরে বড়সড় ধস, তৃণমূলে যোগদান ৪০ টি পরিবারের

কৃষ্ণা দাস, শিলিগুড়ি: গুরুং শিবিরে জোড় ধাক্কা। গুরুং পন্থী মোর্চা ছেড়ে তৃণমূলে যোগদান করল গুরুং পন্থী বেশ কিছু সক্রিয় নেতা কর্মী।  কালিম্পং এর ৩৬ সমষ্টি সীট ফার্মের গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা ১ ও ২ থেকে কমপক্ষে ৪০টি পরিবার তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করল বলে দাবি করেন রাজ্য সভার সাংসদ শান্তা ছেত্রী।

বৃহস্পতিবার  শিলিগুড়ির হিলকার্ট রোডে দার্জিলিং জেলা তৃণমূল কার্যালয়ে তাদের হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন রাজ্য সভার সাংসদ শান্তা ছেত্রী। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন দার্জিলিং জেলা তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি রঞ্জন সরকার, মদন ভট্টাচার্য সহ পাহাড়ের তৃণমূল নেতৃত্বরা।

[আরও পড়ুন- তৃণমূল, সিপিএম ছেড়ে নন্দীগ্রামে বিজেপিতে যোগ ২০০ জনের]

শান্তা ছেত্রী জানান, গুরুং পন্থী গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার ৪০ সমষ্টীর সাধারণ সম্পাদক পালদেন ভুটিয়া, গুরুং পন্থী  গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা-২ এর এক্সিকিউটিভ বডির সদস্য উজিতা গুরুং সহ ল্যাংডুপ দর্জি ভুটিয়া, ভুটিয়া বোর্ডের সদস্য, সোয়েতা প্রধান সহ কালিম্পংয়ের গুরুং পন্থী ৩৬ সমষ্টির সীট ফার্মের কমপক্ষে ৪০ টি পরিবার এদিন গজমম ছেড়ে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করেন। যদিও শান্তা ছেত্রী দাবী করেন এদিন যারা তৃণমূলে যোগদান করল তাদের বিরুদ্ধে কোনও মামলা নেই। যাদের বিরুদ্ধে কোনও মামলা নেই তাদেরই দলে যোগদান করানো হয়েছে। যদিও শান্তা ছেত্রী নানা প্রশ্নের উত্তর সুকৌশলে এড়িয়ে যান। পাশাপাশি তিনি দাবী করেন প্রচুর পাহাড়েবাসী বিভিন্ন দল ছেড়ে তৃণমূলে যোগদান করতে চাইছে। পর্যায়ক্রমে তাদের হাতে তৃণমূলের দলীয় পতাকা তুলে দেওয়া হবে।

 

Related Articles

Back to top button
Close