fbpx
গুরুত্বপূর্ণদেশহেডলাইন

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে নতুন করে করোনা আক্রান্ত প্রায় ৪৮ হাজার, সুস্থ সাড়ে ন’লক্ষ

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: বিশ্বের মধ্যে সবচেয়ে দ্রুতহারে করোনা সংক্রমণ হচ্ছে ভারতে। দেশে প্রায় নিয়মিতভাবে ৪৫ হাজারেরও বেশি মানুষ করোনা আক্রান্ত হচ্ছেন। ব্যতিক্রম হল না মঙ্গলবারও। ২৪ ঘণ্টায় দেশে নতুন করে করোনা আক্রান্ত হলেন সাড়ে ৪৭ হাজারেরও বেশি মানুষ। যা রীতিমতো চিন্তা বাড়াচ্ছে। তবে এসবের মধ্যে স্বস্তির খবর একটাই। সেটা হল করোনাজয়ীর সংখ্যা। দেশে আক্রান্তের সংখ্যা যেমন বাড়ছে তেমনি বাড়ছে সুস্থতার হারও।

মঙ্গলবার সকালে স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রকের  দেওয়া পরিসংখ্যান বলছে, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ৪৭ হাজার ৭০৪ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। ফলে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৪ লক্ষ ৮৩ হাজার ১৫৭ জন। এদের মধ্যে ৯ লক্ষ ৫২ হাজার ৭৪৪ জন ইতিমধ্যেই সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। এখনও চিকিৎসাধীন ৪ লক্ষ ৯৬ হাজার ৯৮৮ জন। এই নিয়ে টানা এক সপ্তাহেরও বেশি সময় ধরে প্রতিদিন ৪৫ হাজারের বেশি মানুষ আক্রান্ত হচ্ছেন। সংক্রমণের নিরিখে এখনও বিশ্বে তৃতীয় স্থানে থাকলেও প্রতিদিন এই আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি চিন্তা বাড়াচ্ছে বিশেষজ্ঞদের। আক্রান্তের সংখ্যার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃতের সংখ্যাও। স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনা আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারিয়েছেন ৬৫৪ জন। এর ফলে মোট মৃতের সংখ্যা গিয়ে দাঁড়াল ৩৩ হাজার ৪২৫ জনে। বিশ্বের অন্যান্য দেশের তুলনায় ভারতের মৃত্যুহার এখনও খানিকটা কম। সেটাই আতঙ্কের মধ্যে খানিকটা স্বস্তি দিচ্ছে।

করোনা সংক্রমণ ও মৃতের সংখ্যার নিরিখে এখনও এগিয়ে মহারাষ্ট্র। আজকের হিসেবে মহারাষ্ট্রে করোনা অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যা ১ লাখ ৪৮ হাজার ৯০৫। মৃত্যু হয়েছে ১৩ হাজার ৬৫৬ জনের। একদিনে ভাইরাস সংক্রমণে মৃতের সংখ্যা ২৬৭ জন। মহারাষ্ট্রে কোভিড সংক্রমণের বেশিরভাগই মুম্বইতে। সেখানে কোভিড পজিটিভ রোগীর সংখ্যা এক লাখ পেরিয়েছে। তবে আশা জাগাচ্ছে ধারাভি বস্তি। বৃহন্মুম্বই পুরসভা জানিয়েছে ধারাভিতে আক্রান্ত কমেছে, মৃত্যুহারও কম। গত কয়েকদিনে মাত্র ২ জনের সংক্রামিত হওয়ার খবর মিলেছে।রাজধানীতে করোনা সংক্রমণ বাড়লেও সুস্থতার হারও বেড়েছে। সংক্রমণ সারিয়ে সুস্থও হয়েছেন প্রায় দেড় লাখ কোভিড রোগী। গুজরাট ও তামিলনাড়ুতেও কোভিড সংক্রমণ বাড়ছে। গুজরাটে এখন কোভিড অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যা ১৩ হাজার ১৩১। তামিলনাড়ুতে ইতিমধ্যেই কোভিড পজিটিভ রোগীর সংখ্যা ২ লাখ পেরিয়েছে। অ্যাকটিভ কেস ৫৩ হাজার ৭০৩। এদিকে করোনা সংক্রমণ বেড়েই চলেছে কর্নাটকে। সুস্থও হয়েছেন ৩৫ হাজারের বেশি মানুষ। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক জানিয়েছে, দেশে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়লেও সুস্থতার হারও বেড়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা সারিয়ে সুস্থ হয়েছেন ৩৫ হাজার ১৭৫ জন। দেশে মোট সুস্থ হয়ে ওঠাদের সংখ্যা ৯ লাখ ৫২ হাজার ৭৪৩। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের হিসেবে সুস্থতার হার ৬৩.৯২%। দেশে এখন কোভিড সংক্রমণে মৃত্যুহার কমে হয়েছে ২.২৮%। আগে ছিল ২.৩৫%।

আরও পড়ুন: অক্সফোর্ডের টিকার ট্রায়াল হবে দেশের পাঁচ জায়গায়,‘বড় পরিকল্পনা’ কেন্দ্রের

বিশ্বের অন্যান্য দেশের তুলনায় যা সবচেয়ে কম। করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে কোভিড টেস্টের সংখ্যা আরও বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। দিনে গড়ে দশ লক্ষ টেস্টের পরিকল্পনা নেওয়া হচ্ছে। গত শনিবারই ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অব মেডিক্যাল রিসার্চের (আইসিএমআর)হিসেবে ৪ লাখ ২০ হাজার ৮৯৮টি কোভিড টেস্ট হয়েছিল দেশে। ২৬ জুলাই, রবিবারের হিসেবে দেখা গেল একদিনে দেশজুড়ে করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে পাঁচ লাখের বেশি। এখনও অবধি মোট কোভিড টেস্ট হয়েছে ১ কোটি ৬৮ লক্ষ ৬ হাজার ৮০৩। দেশের মোট ১ হাজার ৩০৭টি ল্যাবরেটরিতে করোনা পরীক্ষা করা হচ্ছে। তার মধ্যে ৯০৫টি সরকারি ল্যাবরেটরি ও ৪০২টি বেসরকারি ল্যাবরেটরি রয়েছে।

Related Articles

Back to top button
Close