fbpx
কলকাতাপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

রাজ্যে রইল না আর কোনও গ্রিন জোন!  ৩১৭ জন করোনা পজিটিভে ৫০০০ পেরোল রাজ্য, মৃত আরও ৭: বুলেটিন

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: পরিযায়ী শ্রমিকরা ফেরা শুরু করতেই রাজ্যে বিপুল হারে বাড়তে শুরু করেছে সংক্রমণ। এবার একমাত্র  শেষ গ্রিন জোন কোচবিহারেও একদিনে ৩২ আক্রান্তের খোঁজ মেলায় রাজ্যের সমস্ত গ্রিন জোনই ঢুকে গেল অরেঞ্জ জোনে।
২৪ ঘন্টায় রাজ্যে ৩১৭ জনের করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসায় মোট আক্রান্ত সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৫১৩০ জন। আরও ৭ জনের মৃত্যু হওয়ায় রাজ্যে মোট করোনায় মৃত্যু ২৩৭ জনের। অন্যদিকে, করোনা আক্রান্ত থাকাকালীন অন্য উপসর্গে ৭২ জনের মৃত্যুর হিসেব ধরলে রাজ্যে মোট মৃত্যু ৩০৯ জনের। একই সঙ্গে ২৪ ঘন্টায় আরও এদিন রেকর্ড পরিমাণ ১৯৫ জন সুস্থের হিসেব ধরলে মোট সুস্থ হলেন ১৯৭০ জন। সুস্থ হওয়ার হার ৩৮.৪০ শতাংশ। শনিবার স্বাস্থ্য দফতরের প্রকাশিত বুলেটিনে এমনটাই জানানো হয়েছে।
এই মুহূর্তে রাজ্যে করোনা আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন ২৮৫১ জন। তার মধ্যে এ দিন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রোগীর সংখ্যা বেড়েছে ১১৫ জনের। রাজ্যের ৬৯ টি করোনা হাসপাতাল, ১৬ টি সরকারি এবং ৫৩ টি বেসরকারি হাসপাতালে মোট ৮৭৮৫ টি বেড আছে, আইসিইউ পরিষেবা রয়েছে ৯২০ জনের। ভেন্টিলেটর রয়েছে ৩৯২টি। তার ১৮.৬০ শতাংশ রোগী ভর্তি আছেন। বুলেটিনে আরও জানা গিয়েছে,  রাজ্যে সব মিলিয়ে রাজ্যের ৪০ টি ল্যাবে মোট করোনা টেস্টের সংখ্যা ১৯৪৩৯৭ জনের। ২৪ ঘন্টায় রাজ্যে করোনা পরীক্ষা হয়েছে ৯৩৪৬ জনের।
 সরকারি ৫৮২ টি কোয়ারেন্টাইনে এখন রয়েছেন ১৬১৫২ জনকে। ছেড়ে দেওয়া হয়েছে ৫০১৮৫ জনকে। হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন ১২৫২৮৭ জন। ছেড়ে দেওয়া হয়েছে ৮৬৭১২ জনকে।
এছাড়া এদিনের বুলেটিনে জেলাওয়াড়ি তথ্যে জানানো হয়েছে, কলকাতায় ৮০ আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে মোট সংক্রমণ ২০৫৩ জনের। এদিন কলকাতায় আরও ৬ জনের মৃত্যু হওয়ায় কলকাতাতেই মোট মৃত্যু ২০২ জনের।  তারপরেই হাওড়ায় ৪২ জনের সংক্রমণ বেড়ে মোট সংক্রমণ ৯৮২ জনের। তারপরে উত্তর ২৪ পরগনায় ৩০ সংক্রমণ বেড়ে মোট সংক্রমণ ৬৭৫ জনের। এখানে এক জনের মৃত্যু হওয়ায় মোট মৃত্যু সংখ্যা ৪২ জন। এছাড়া পুরুলিয়া, কালিম্পং এবং আলিপুরদুয়ার ছাড়া  উল্লেখযোগ্য হারে সংক্রমণ বেড়েছে গোটা রাজ্যেই।
মোট আক্রান্ত ৫১৩০ জন (+৩১৭)
মোট মৃত ২৩৭ জন (+৭)
মোট সুস্থ ১৯৭০ জন (+১৯৫)

Related Articles

Back to top button
Close