fbpx
অসমগুরুত্বপূর্ণদেশহেডলাইন

শিশুদের সঙ্গে নিয়ে মথুরায় আটকে ৬০ জন বাঙালি পর্যটক, বাড়ি ফেরার আবেদন সরকারের কাছে

ইন্দ্রাণী দাশগুপ্ত, নয়া দিল্লি: লকডাউনের ফলে অসম এবং ত্রিপুরার ৬০ জন পর্যটক দীর্ঘদিন ধরে আটকে রয়েছেন মথুরার রাধা কুন্ডের রাধামাধব মন্দিরে। অসম এবং কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে তাদের কাতর অনুরোধ যাতে দুটি বাস পাঠিয়ে তাদের বাড়ি ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়া
হয়। চাষি এবং শ্রমিক শ্রেণীর এই পর্যটকরা দীর্ঘদিন বাড়ি ফিরতে না পারার ফলে অসম্ভব আর্থিক অসুবিধায় মধ্যেই আটকে রয়েছেন মথুরায়।

মার্চ মাসের ২ তারিখ পরিবার নিয়ে তীর্থ ভ্রমণে বেরিয়ে ছিলেন অসমের কাছাড় করিমগঞ্জ এবং ত্রিপুরার ৬০ জন বাঙালি পর্যটক। পশ্চিমবঙ্গের নবদ্বীপ , গয়া, পুরী হয়ে তারা ১৫ মার্চ পৌঁছান বৃন্দাবন ধাম। তাদের ফেরার টিকিট ছিল ২৬ মার্চের। কিন্তু ২৪ তারিখ গভীর রাত থেকে দেশে লকডাউন শুরু হয়ে যাওয়ার ফলে এই পর্যটকরা আটকে পড়েন মথুরায়।তখন মথুরার রাধা কুন্ডের রাধা মাধব মন্দিরের যাত্রীনিবাসে তারা থাকছিলেন। লকডাউন হয়ে যাওয়ার ফলে যখন তারা ফিরতে না পারেন তখন মন্দিরের পক্ষ থেকেই তাদের দুই বেলা খাওয়ার যাবতীয় দায়িত্ব নেওয়া হয় এবং বিনামূল্যে তাদের থাকতে দেওয়া হয়।

কিন্তু সমস্যা শুরু হয় অন্য জায়গায়। যেহেতু তারা মার্চ মাসের দু তারিখে বাড়ি ছেড়েছিলেন এবং ফিরে যাওয়ার ঠিক একদিন আগেই লকডাউন শুরু হয়ে যায় তার ফলে তাদের হাতের পয়সাও সীমিত ছিল সেই সময়ই যা এখন প্রায় নিঃশেষ।

এই প্রসঙ্গে মনমোহন সিনহা জানান, আমরা শুনেছি অসম সরকার রাজস্থানের থেকে ছাত্র-ছাত্রীদের নিয়ে যাওয়ার জন্য বাস পাঠিয়েছিলেন। আমাদেরও যদি মাত্র দুটি বাস পাঠান তাহলে আমরা বাড়ি ফিরে যেতে পারি। এখানে আমাদের সঙ্গে তিনটি ছোট ছোট শিশু আছে এবং অনেক মহিলারা আছেন।

সবাই মিলে আমরা অত্যন্ত খারাপ একটা অবস্থার মধ্যে দিন কাটাচ্ছি।তাই কেন্দ্রীয় সরকার এবং অসম সরকারের কাছে আমাদের বিনীত নিবেদন দয়া করে আমাদের বাড়ি ফিরে যাওয়ার ব্যবস্থা করুন।না হলে দিনকে দিন আমাদের এখানে উপস্থিত ষাটজন বাঙালির পরিস্থিতি খারাপ থেকে আরও খারাপের দিকে যাবে।

Related Articles

Back to top button
Close