fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

পূর্ব বর্ধমান জেলা পুলিশের বসানো বিনে পয়সার হাট থেকে খাদ্যসামগ্রী পেলেন ৭০টি নিরন্ন পরিবার

প্রদীপ চট্টোপাধ্যায়, বর্ধমান: পুলিশের বসানো বিনে পয়সার হাট থেকে খাদ্য সামগ্রী পেলেন দুঃস্থরা।শুনতে অবাক লাগাটাই স্বাভাবিক। বাস্তবেই শনিবার দুঃস্থদের জন্য এমন বিনে পয়সার হাট বসিয়েছিল পূর্ব বর্ধমানের আউসগ্রাম থানার পুলিশ। আর পুলিশের বসানো হাট থেকে বিনে পয়সায় ব্যাগ ভর্তি খাদ্য সামগ্রী নিয়ে হাসি মুখেই বাড়ি গেলেন দিন-আনা, দিন-খাওয়া নিরন্ন মানুষজন। পুলিশের এই মহানুভবতার তারিফ না করে পারেন নি আউসগ্রামের বাসিন্দারা।

আউসগ্রাম থানা সংলগ্ন মাঠে এদিন বেলায় বসে বিনে পয়সার হাঠ। আউসগ্রামে সচারাচর যেমন হাট বসে তার সঙ্গে পুলিশের বসানো হাটের কোনও অংশেই মিল ছিল না। এই হাটের গ্ল্যামারটাই ছিল আলাদা। রীতিমতো সরকারি উর্দি পরে হাটে খাদ্য সামগ্রী নিয়ে বসেছিলেন পুলিশ কর্মী ও অফিসাররা।আর খাদ্য সামগ্রী গ্রহীতারা ছিলেন একেবারেই ধোপদুরস্থ হীন নিরন্ন মানুষজন। স্বাস্থ্য বিধি মেনে পুলিশের হাট থেকে এলাকার ৭০টি নিরন্ন পরিবারের সদস্যরা নিয়ে গেলেন চাল, ডাল, আলু, তেল, বিস্কুট, লবণ ও ডিম।

কঠিন পরিস্থিতিতে এলাকার নিরন্ন মানুষজনের জন্য খাদ্যের সংস্থান করতে পেরে খুশি পুলিশ কর্মীরাও।

আউসগ্রাম থানা সূত্রে জানা গিয়েছে, স্থানীয় কয়েকটি পঞ্চায়েত এলাকায় বেশ কিছু মানুষ রেশন পাচ্ছেন না। কারণ তাঁদের কারুর রেশন কার্ড হারিয়ে গেছে। আবার কেউ নতুন কার্ডের জন্য আবেদন করলেও এখনও রেশন কার্ড হাতে পাননি। মূলত এই রকম পরিবারগুলির অসহায়তার কথা জানতে পেরেই আউসগ্রাম থানার পক্ষ থেকে বিনে পয়সার হাট বসানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

এদিন বিনে পয়সার হাটের তদারকিতে থাকা ডিএসপি-ডিএনডি অরিজিৎ পাল চৌধুরী বলেন, পূর্ব বর্ধমান জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে এদিন এমন মানবিক উদ্যোগ নেওয়া হয়।
স্বাস্থ্য বিধি মেনে ৭০টি পরিবারের হাতে খাদ্য সামগ্রী তুলে দেওয়া হয়েছে। আগামী দিনে জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে আবারও এমন কর্মসূচি নেওয়া হতে পারে।

Related Articles

Back to top button
Close