fbpx
কলকাতাহেডলাইন

ফিরহাদের বিরুদ্ধে মুখ খোলায় শোকজ সাধন

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক:  ফিরহাদের বিরুদ্ধে কথা বলায় সাধন পাণ্ডেকে শোকজ করলো তৃণমূল। আমফান পরবর্তী পরিস্থিতি সামলাতে ‘ব্যর্থ’ কলকাতা পুরসভা। বিপর্যয় সামলাতে ফিরহাদ হাকিম বিধায়কদের মতামতও নেননি বলে অভিযোগ করেন সাধন পাণ্ডে। মিডিয়ায় এহেন মন্তব্য করার জেরে দলীয় শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগে শোকজ করা হয়েছে সাধন পাণ্ডেকে। উত্তর কলকাতা জেলা তৃণমূল সভাপতি সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় মানিকতলার বিধায়ক সাধন পাণ্ডেকে শোকজ করেছেন। প্রবীণ দলীয় নেতা হয়েও কেন তিনি দলীয় ফোরামে নিজের মতামত না জানিয়ে প্রকাশ্যে দলের মন্ত্রী তথা প্রশাসকদের বিরুদ্ধে মুখ খুলেছেন তা জানতে চেয়েছে তৃণমূল। সাধন পাণ্ডের থেকে এ বিষয়ে কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

ঘূর্ণিঝড় আমফান নিয়ে সংঘাতে জড়িয়েছেন রাজ্যেরই দুই মন্ত্রী। মানিকতলার বিধায়ক তথা রাজ্যের ক্রেতা সুরক্ষা মন্ত্রী সাধন পাণ্ডে মঙ্গলবার বলেন, ‘আমফান নিয়ে আগেই আবহাওয়া দফতর সতর্ক করেছিল। পুরসভা প্রস্তুতি নিলে ঝড়ের সাত দিন পরেও এই হাল থাকত না।’ এমনকী ঝড় পরবর্তী পরিস্থিতি সামলাতে পুরমন্ত্রী তথা কলকাতা পুরসভার প্রশাসকমণ্ডলীর চেয়ারম্যান ফিরহাদ হাকিম কেন প্রাক্তন মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে আলোচনা করলেন না তা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন সাধন পাণ্ডে।

আরও পড়ুন: শহরে যাত্রী নিয়ে ছুটছে অটো, চাপ বাড়ছে বেসরকারি বাস মালিকদের

আমফানে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে শহর কলকাতায়। কোথাও গাছ ভেঙে কোথাও বা বিদ্যুতের খুঁটি উপড়ে দুর্ভোগ বেড়েছে সাধারণ মানুষের। একটানা বেশ কয়েকদিন ধরেই চলতে থাকে যন্ত্রণা। গত সপ্তাহের বুধবারের ঝড়ের পর একটানা বেশ কয়েকদিন বিদ্যুত্‍, জলের কষ্টে ভুগেছেন শহর কলকাতার একটা বড় অংশের মানুষ। শহরবাসীর সেই যন্ত্রণা নিয়েই কলকাতা পুরসভাকে কাঠগড়ায় তোলেন রাজ্যেরই মন্ত্রী সাধন পাণ্ডে।

সাধন পাণ্ডেকে পালটা জবাবও দেন ফিরহাদ হাকিম। তিনি বলেন, ‘আমি বাড়িতে বসে বড় বড় কথা বলছি না। রাস্তায় নেমে কাজ করছি। উনিও রাস্তায় নামুন। এদিকে, ফিরহাদ-সাধন দ্বন্দ্ব নিয়ে রাজ্য সরকারকে খোঁচা দিতে আসরে নেমে পড়েছেন রাজ্যপাল। বুধবার টুইটে তিনি বলেন, ‘দুই সিনিয়র মন্ত্রীই যখন নিজেদের মধ্যের দ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে এনে ফেলেন তখনই বাস্তবচিত্রটা বেরিয়ে পড়ে।’এদিকে আমফান পরবর্তী পরিস্থিতিতে রাজ্য মন্ত্রীসভার গুরুত্বপূর্ণ সদস্যরা প্রকাশ্যে একে অপরের বিরুদ্ধে তোপ দেগে বসায় বেজায় অস্বস্তিতে তৃণমূল কংগ্রেসের শীর্ষ নেতৃত্ব। এই মুহূর্তে সাধন পান্ডের প্রকাশ্যে দলবিরোধী কার্যকলাপ বঙ্গ রাজনীতিতে বাড়তি গুরুত্ব পাবে বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

Related Articles

Back to top button
Close