fbpx
কলকাতাপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

৬৩ দিনের খুদে এবার হারিয়ে দিল করোনাকে, নজিরবিহীন বলছেন চিকিৎসকরাই

 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: করোনার ভয়াবহতা কি তাহলে ধীরে ধীরে কমে আসছে? কাঁথির মাত্র ৪০ দিনের খুদেকে ২৩ দিনের জন্যও কাবু করতে পারল না করোনা ভাইরাস। নিজের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা ও ৮ দিনের ভেন্টিলেশনে ইনস্টিটিউট অফ চাইল্ড হেলথের একরত্তি দেশের সর্বকনিষ্ঠ করোনাজয়ী শিশু মেঘলা সুস্থ হয়ে উঠল। যা রীতিমতো নজিরবিহীন বলে মনে করছেন চিকিৎসকরা।

প্রসঙ্গত, ২০ জুলাই থেকে শিশুটির জ্বর শুরু হয়। শ্বাসকষ্ট শুরু হয়। এক সপ্তাহ পরেও না কমায় ২৮ জুলাই কোলের শিশুকে নিয়ে পূর্ব মেদিনীপুরের কাঁথির বাড়ি থেকে সটান পার্ক সার্কাসের শিশু হাসপাতালে হাজির হন মা-বাবা। ২৯ জুলাই করোনা টেস্ট করানো হয় শিশুটির। রিপোর্ট আসতেই দেখা যায়, একরত্তি ওই শিশুটিও করোনা পজিটিভ। মাত্র ৪০ দিনের শিশু কি করে সংক্রমিত হল, তা নিয়ে আশ্চর্য হয়ে যান তার বাবা-মাও।

এদিকে শিশুটিকে বাঁচানোর জন্য নিওনেটাল ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটে যুদ্ধ শুরু করে ডা. খেয়া ঘোষ উত্তম এবং ডা. প্রভাস প্রসূন গিরির ‘নিকু’ টিম। বাচ্চাটিকে ভেন্টিলেশনে ঢুকিয়েও বাড়ছিল না অক্সিজেন স্যাচুরেশন। স্বাস্থ্য ভবনের সঙ্গে কথা বলে শিশুটিকে কলকাতা মেডিক্যাল কলেজে স্থানান্তরিত করার চেষ্টা করা হয়। কিন্তু আইসিইউ অ্যাম্বুল্যান্স ছাড়া তা সম্ভব ছিল না। স্থানান্তরিত করার ঝুঁকিও ছিল মারাত্মক।

প্রাথমিক ভাবে চিকিৎসকদের সন্দেহ, কাঁথির যে নার্সিংহোমে শিশুটির জন্ম হয়েছে, সেখান থেকেই খুদের শরীরে ভাইরাস ঢুকেছে।
অবশেষে গত ১৯ আগস্ট বাচ্চাটির কোভিড রিপোর্ট নেগেটিভ আসে।

Related Articles

Back to top button
Close