fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

নেশার জিনিস না পেয়ে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মঘাতী যুবক

মিল্টন পাল, মালদা: মাদকাশক্ত যুবক নেশার জিনিস না পেয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে যুবকের আত্মহত্যা। ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার মালদার বৈষ্ণবনগর থানার খেজুরিয়া নিউ কলোনী এলাকায়। অভিযোগ উঠছে এলাকায় ব্রাউন সুগার পাচারের রমরমা চললেও ব্যবস্থা নিচ্ছে না পুলিশ। মৃতদেহ ময়নাতদন্তে পাঠিয়ে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃতের নাম দোলন সাহা (২৫)। বাড়ি খেজুরিয়া নিউকলোনী এলাকায়। পেশায় দিনমজুর।মৃতের কাকা নৃপেন সাহা জানান,একদিকে করোনা সংক্রমনের জেরে লকডাউনে বাড়িতেই ছিল। সে ব্রাউন সুগারের নেশা করতো। সম্প্রতি সেই নেশা করার জন্য টাকা পাচ্ছিলো না। সোমবার রাতে কোথাও থেকে টাকা জোগার করে ব্রাউন সুগার মাদক নেয়। এরপর রাত্রিবেলা আবার নেশার জিনিস খোঁজ করতে থাকে। কিন্তুু সেই নেশার জিনিস পাইনী। এরপর একাই ঘরে ঢুকে যায়। ঘটনা দেখতে পেয়ে পরিবারের সদস্যরা তরিঘরি দরজা ভেঙে তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় প্রাথমিক চিকিৎসা কেন্দ্রে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসকেরা তাকে মৃত বলে জানায়। মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মালদা মেডিক্যালে পাঠিয়ে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

           আরও পড়ুন: বুধবার করোনার ভ্যাকসিন বিলি নিয়ে বিশেষ বৈঠকে বসছে টাস্কফোর্স

পরিবারের সদস্যদের আরও অভিযোগ, ভারত বাংলাদেশ সীমান্তবর্তী বৈষ্ণবনগর থানা এলাকায় রমরমিয়ে চলছে ব্রাউন সুগারের কারবার। যার ফলে এলাকায় আট থেকে আশি ব্রাউন সুগারের নেশায় আশক্ত হচ্ছে। ধ্বংশের মুখে চলে যাচ্ছে এলাকার যুব সমাজ। বারবার প্রশাসনকে বললেও পুলিশ ব্যবস্থা নিচ্ছে না। এমনকি দেখা যাচ্ছে প্রকাশ্যে এই মাদক কারবার চললেও মুখে কুলুপ পুলিশ প্রশাসনের। আমরা চাই পুলিশ এর বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নিক। যাতে কোন ভাবেই কোন মানুষ এই নেশাই আশক্ত না হয়। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃতদেহ ময়না তদন্তে মালদা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আত্মহতা না খুন তা নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

 

Related Articles

Back to top button
Close