fbpx
কলকাতাহেডলাইন

চন্দননগরের সদ্যোজাতের দেহ লোপাট নিয়ে মামলা হাইকোর্টে

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: আরজিকর হাসপাতালে চন্দননগরের সদ্যোজাতের দেহ লোপাটের অভিযোগ তুলে মামলা দায়ের কলকাতা হাইকোর্টে। চলতি সপ্তাহেই মামলার শুনানি সম্ভাবনা রয়েছে। এদিন মামালাকারীর আইনজীবী জানান, গত ১৩ জুন চন্দননগরের বাসিন্দা দেবযানী মণ্ডল ও বাবুন মণ্ডলের সদ্যোজাতকে আরজিকর মেডিক্যাল কলেজে ভর্তি করানো হয়। কিন্তু মৃতের পরিবারের অভিযোগ, তারপর থেকে আর শিশুর দেখা পায়নি পরিবার।

যদিও লকডাউনের মধ্যে রোজ চন্দননগর থেকে হাসপাতালে এসে সন্তানের জন্য স্তন্যদুগ্ধ দিয়ে দিয়েছেন মৃত শিশুটির মা। তবে বেশ কয়েকদিন ওই সদ্যোজাত শিশুকে আর দেখা করতে দেওয়া হয়নি তার মায়ের সঙ্গে। সন্তানের কথা জিজ্ঞাসা করলে জানানো হয়, চিকিৎসক বলতে পারবেন। ব্যাপারটি সন্দেহজনক মনে হলে বাচ্চাটির বাবা জোর করে হাসপাতালে ঢোকে। বাচ্চাদের বেডের কাছে গিলে জানানো হয় তার মৃত্যু হয়েছে।

আরও পড়ুন: ফি না পেয়ে অভিভবকদের বিরুদ্ধে মমতাকে চিঠি সিবিএসসি প্রধানদের

তবে শিশুটির পরিবারের অভিযোগ, গত ১৩ জুন যে বাচ্চা কে ভর্তি করা হয়েছে, ২৬ জুন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের তরফে জানানো হয় ভর্তির ২ দিন পরেই ১৫ জুন মৃত্যু হয়েছে শিশুটির। তাহলে এতো দিন জানানো হল না কেনো তা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন শিশুটির পরিবার। তাদের আরও দাবি, সন্তানকে অন্যত্র সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। হাসপাতালের কর্মীরাই তাকে বিক্রি করে দিয়েছেন। তাই দেহ দেখাতে পারছে না। আদালতের এবিষয়ে হস্তক্ষেপ চেয়ে আবেদন করেছেন মৃতের পরিবার।

Related Articles

Back to top button
Close