fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

বিশ্বভারতী কাণ্ডে সিবিআই তদন্ত চেয়ে মামলা দায়ের কলকাতা হাইকোর্টে

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বিশ্বভারতী কাণ্ডে সিবিআই তদন্ত চেয়ে এবার মামলা দায়ের হল কলকাতা হাইকোর্টে। সোমবার মামলা দায়ের করেন জনৈক আইনজীবী রমা প্রসাদ সরকার। চলতি সপ্তাহেই এই মামলার শুনানির সম্ভাবনা রয়েছে হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চে।

গত ১৭ আগস্ট পৌষ মেলার মাঠে পাঁচিল দিয়ে ঘেরাকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে গোটা এলাকা বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে ঢুকে ভাঙচুর চালায় বহিরাগতরা। ঘটনায় পুলিশ ছিল নীরব দর্শক। তাই পুলিশকে দিয়ে তদন্ত করা হয় তদন্তে কোনও অগ্রগতি হবে না। এই ঘটনার নিরপেক্ষ তদন্তের জন্য সিবিআই তদন্তের আবেদন জানিয়েছেন আইনজীবী। ৪ সপ্তাহের মধ্যে যাতে প্রাথমিক তদন্ত শুরু হয় কার আবেদন করা হয়েছে মামলায়।

পাশাপাশি, গোটা বিশ্ববিদ্যালয় চত্ত্বরে নিরাপত্তার জন্য যে ব্যবস্থা আছে সেখানেও কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা বাহিনীর সিআইএসএফ নিয়োগ করার আবেদন জানানো হয়েছে মামলায় এবং ক্যাম্পাসের আবাসিক ছাড়া যাতে বোঝা কতদিন করতে না দেওয়া হয় সেই আবেদন জানানো হয়েছে।

আরও পড়ুন: লকডাউনে কাজ হারিয়েছে পরিবার, ‘অনাহারে’ মৃত্যু শিশুকন্যার!

মামলায় বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সহ তৃণমূল বিধায়ক নরেশ বাউড়ি ও জেলা সভাপতি অনুব্রত মন্ডলকেও পক্ষভুক্ত করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, কোরোনা পরিস্থিতিতে ঐতিহ্যবাহী পৌষমেলার মাঠ ঘিরে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ। সিদ্ধান্ত মতো শুরু হয় নির্মাণকাজও। যাকে কেন্দ্র করে মূলত রণক্ষেত্র চেহারা নেয় শান্তিনিকেতন। শুধু বোলপুর নয় আশেপাশের গ্রাম গুলি থেকেও বহু মানুষ জমায়েত হয়। তারা ঢালাই মেশিন উল্টে দেয়। ভিতের যে ঢালায় হয়েছিল তার ওপর ইট ফেলে দেয়। উপাচার্য সহ বিশ্বভারতীর কর্তৃপক্ষের নজরদারির জন্য যে প্যান্ডেল করা হয়েছিলো সেটিও ভেঙে দেয় বিক্ষোভকারীরা। তারা প্যান্ডেলে থাকা চেয়ার ফ্যান ভেঙে দেয়। এরপরই মাস কয়েক থেকে বন্ধ গেটের তালা ভেঙে সেই গেটও তারা খুলে দেয়। শুধু তাই নয় জেসিবি মেশিন দিয়ে ওই গেটটিও ভেঙে ফেলে বিক্ষোভকারীরা।

Related Articles

Back to top button
Close