fbpx
গুরুত্বপূর্ণপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

বিজেপি করার ‘অপরাধ’-এ দুষ্কৃতীদের হাতে জখম হলেন প্রাক্তন সেনাকর্মী

শুভঙ্কর মিশ্র, এগরা (পূর্ব মেদিনীপুর): গ্রামে বিজেপি নেতৃত্ব দেওয়ার অভিযোগে প্রাক্তন সেনাকর্মীর উপর প্রাণঘাতী হামলা চালানোর অভিযোগ উঠল তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে। রক্তাক্ত বিজেপি কর্মী তথা প্রাক্তন সেনাকর্মী সঙ্কটজনক অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। যদিও এই অভিযোগ পুরোপুরি অস্বীকার করেছে শাসক দল। ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব মেদিনীপুর জেলার পটাশপুর এক ব্লকের নৈপুরপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের আলামচক বেলদা গ্রামে।

জানা গিয়েছে, পূর্ব মেদিনীপুর জেলার পটাশপুর এক ব্লকের নৈপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের  অনন্ত মাইতি সক্রিয় বিজেপি কর্মী। এছাড়া অনন্ত মাইতি একজন প্রাক্তন সেনা কর্মীও। এখন বর্তমানে একটি প্রাথমিক স্কুলের শিক্ষক। গ্রামে বিজেপির পক্ষ থেকে নেতৃত্ব দেন অনন্ত বাবু। রবিবার সকাল ন’টা নাগাদ ভাইয়ের বাড়ি থেকে বাড়ি ফিরছিল অনন্ত মাইতি। তখনই বাড়ি থেকে বেশ কিছু দূরে তৃণমূল আশ্রিত বেশ কয়েকজন গুন্ডাবাহিনী অনন্ত বাবুকে ঘিরে ধরে। আর গ্রামের বিজেপি নেতৃত্ব দেওয়ার অভিযোগ তুলে দুষ্কৃতীরা অনন্ত বাবুর উপর প্রাণঘাতী হামলা চালায় বলে অভিযোগ।

আরও পড়ুন: গোঘাটে বিজেপি কর্মীকে খুনের অভিযোগ, উত্তেজনা, পুলিশের লাঠিচার্জ, প্রহৃত কয়েকজন সাংবাদিক

এরপর দুষ্কৃতীরা লোহার রড, পাইপ, ধারালো অস্ত্র দিয়ে উপর হামলা চালায় বলে অভিযোগ। এদিকে অনন্তবাবুর চিৎকার শুনে গ্রামবাসীরা ছুটে এলে রাস্তার উপর ফেলে সেখান থেকে চম্পট দেয় দুষ্কৃতী দল যুবকেরা। পুরো ঘটনা পুলিশের সামনে ঘটে বলে বিজেপির অভিযোগ। এগরা সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে বিজেপি কর্মী এখন সঙ্কটজনক অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। ঘটনার পর এলাকায় রাজনৈতিক উত্তেজনা তৈরি হয়েছে।

কাঁথি সাংগঠনিক জেলার বিজেপির সভাপতি অনুপ চক্রবর্তী বলেন, গ্রামে বিজেপিতে নেতৃত্ব দেওয়ার জন্যই অনন্ত মাইতির উপর অতর্কিত হামলা চালিয়েছে তৃণমূল আশ্রিত দুস্কৃতীরা। অনন্তবাবু এলাকায় বিজেপি সক্রিয় কর্মী ছিল। গ্রামের বিজেপি নেতৃত্ব দিতেন। অনুপ বাবু আরও বলেন, শাসকদলের পায়ের তলার মাটি সরে গেছে। তাই বেছে বেছে বিজেপি কর্মীদের ওপর হামলা চালাচ্ছে। তৃণমূল আশ্রিত গুন্ডা বাহিনীর সহযোগিতা করছে পুলিশ প্রশাসন। মানুষ যোগ্য জবাব দেবে। এই সমন্ত অভিযোগ উড়িয়ে পূর্ব মেদিনীপুর জেলার তৃণমূল কংগ্রেসের মুখপাত্র মধুরিমা মন্ডল বলেন, এটি সম্পূর্ণ পুরোপুরি মিথ্যে অভিযোগ। সকালে দলবল নিয়ে আসে তৃণমূল কর্মীদের উপর হামলা চালায় বিজেপি কর্মীরা। পূর্ব মেদিনীপুর শান্তির জেলা। বিজেপির কিছু দুষ্কৃতী এই জেলাকে অশান্ত করার চেষ্টা চালাচ্ছে। আমাদের জেলার মানুষ যোগ্য জবাব দেবে। পটাশপুর থানার ওসি চন্দ্রকান্ত শ্যাসমল বলেন, যদিও এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত কোন থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়নি। অভিযোগ পেলে পুরো ঘটনাটি তদন্ত করে দেখা হবে।

Related Articles

Back to top button
Close