fbpx
পশ্চিমবঙ্গ

করোনার আশঙ্কায় তালা ঝুলল কাটোয়ার ভূমি রাজস্ব দফতরে

দিব্যেন্দু রায়,কাটোয়া: করোনা সংক্রমনের ভয়ে কাটোয়ায় সরকারি অফিস বন্ধ করে দেওয়া হল । বৃহস্পতিবার কাটোয়া পুরসভার ১১ নম্বর ওয়ার্ড এলাকার কাটোয়া মহকুমা ভুমি অফিস ও তার পাশে কাটোয়া-১ ব্লক ভুমি অফিসে তালা ঝুলিয়ে দেওয়া হয় । এলাকার এক পরিযায়ী শ্রমিকের করোনা পজিটিভ ধরা পড়ায় পরেই ওই দুই অফিস বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে । অন্যদিকে রবিবার ভাতার ব্লকের কোয়ারিন্টাইন সেন্টারগুলি থেকে পরিযায়ী শ্রমিকদের ছেড়ে দেওয়ার পরে এদিন থেকে ফের কোয়ারিন্টাইন সেন্টারগুলি চালু করা হয়েছে । পুর্ব বর্ধমান জেলায় পরিযায়ী শ্রমিকদের মধ্যে করোনা সংক্রমন উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পাওয়ার ফলেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে খবর। জেলা প্রশাসন সুত্রে জানা গেছে, এদিন বেলা একটা পর্যন্ত পুর্ব বর্ধমান জেলায় কোভিড পজিটিভ রোগীর সংখ্যা ছিল ৪৭ জন ।

জানা গেছে, কাটোয়া পুরসভার ১১ নম্বর ওয়ার্ড এলাকার বাসিন্দা ৩১ বছরের এক পরিযায়ী শ্রমিকের লালা রসের নমুনা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছিল । তিনি ৯ দিন আগে মহারাষ্ট্র থেকে বাড়ি ফিরেছিলেন । কয়েকদিন কাটোয়ার একটি কোয়ারিন্টাইন সেন্টারে থাকার পর গত বুধবার সকালের দিকে তিনি বাড়ি যান । তারপর সন্ধ্যার দিকে তাঁর করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে । এদিকে ওই এলাকাতেই রয়েছে কাটোয়া মহকুমা ভুমি অফিস ও কাটোয়া-১ ব্লক ভুমি ও ভুমি সংস্কার অফিস । এদিন থেকে ওই দুই অফিসেই তালা ঝুলিয়ে দেওয়া হয় । করোনা সংক্রমনের আশঙ্কায় এই প্রথম জেলার কোনও সরকারি দপ্তরে তালা ঝুলিয়ে দেওয়া হল বলে জানা গেছে ।
কাটোয়া মহকুমা ভূমি আধিকারিক বীরেন্দ্রনাথ দাস বলেন, ‘যে এলাকায় আমাদের অফিসে রয়েছে সেখানে একজন করোনা সংক্রমিত রোগীর সন্ধান পাওয়া গিয়েছে। তার জন্য গোটা এলাকা কনটেনমেন্ট জোন হিসাবে ঘোষণা করা হয়েছে । তাই কর্মীদের নিরাপত্তার স্বার্থে অফিস বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এই বিষয়ে উর্ধ্বতন কতৃর্পক্ষকে জানানো হয়েছে।’
অন্যদিকে ভাতারে আটটি কোয়ারিন্টাইন সেন্টারে প্রায় সাত’শর অধিক পরিযায়ী শ্রমিককে রাখা হয়েছিল। কিন্তু গত রবিবার ভাতার কলেজে কোয়ারিন্টাইনে থাকা শ্রমিকরা নিম্ন মানের খাবার দেওয়া হচ্ছে এই অভিযোগ তুলে তুমুল বিক্ষোভ প্রদর্শন করার পরেই ব্লকের সমস্ত কোয়ারিন্টাইন সেন্টারে থাকা পরিযায়ী শ্রমিকদের ছেড়ে দেওয়া হয়েছিল। এদিকে ছেড়ে দেওয়া শ্রমিকদের অনেকের লালা রসের নমুনা সংগ্রহ না করায় এলাকায় বিতর্কের সৃষ্টি হয় । এরপর গত বুধবার ভাতারের কালিপাহাড়ি গ্রামে দুবছরের এক শিশুর করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে । দেখা যায় ওই শিশুর সঙ্গে পরিযায়ী শ্রমিকের যোগ রয়েছে। পাশাপাশি গোটা পুর্ব বর্ধমান জেলা জুড়ে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়তে থাকায় এদিন থেকে ফের ভাতার ব্লকের বেশ কিছু জায়গায় পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য কোয়ারেন্টাইন সেন্টার চালু করা হয়েছে বলে প্রশাসন সুত্রে খবর ।

Related Articles

Back to top button
Close