fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

করোনাকে হারিয়ে ঠাই ষ্টেশনে, পুলিশের উদ্যোগে বাড়ি ফেরা

পাপ্পা গুহ, উলুবেড়িয়া: করোনাকে হারিয়ে গ্রামে ফিরেও গ্রামে থাকতে পারেননি কলকাতা কর্পোরেশনের কর্মী পান্নালালা দে। তার ঠাই হয়েছিল সাকরাইল ষ্টেশনে। যদিও পরে পুলিশের উদ্যোগে শনিবার দুপুরে তিনি তার গ্রামে ফিরতে পেরেছেন।

 

 

জানা গেছে, তপসিয়া পাম্পিং ষ্টেশনের কর্মী পান্নালাল দে গত ২ মে জ্বর নিয়ে কলকাতার একটি হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পর তার করোনা পজিটিভ আসে। এরপর তাকে ৩ মে বাঙ্গুর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পান্নালালা দে জানান ১৩ মে তিনি সুস্থ হয়ে হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়ে গ্রামে এক বন্ধুর বাড়িতে ওঠেন। যদিও পরেরদিন গ্রামের মানুষের বাধায় পুলিশ আমাকে গ্রাম থেকে বের করে দেয়। আমি তাদেরকে নেগেটিভ সার্টিফিকেট দেখালেও তারা সেটা দেখতে চায়নি এমনকি গ্রাম থেকে বেরিয়ে আমি বিভিন্ন জায়গায় গেলেও আমাকে কোথাও আশ্রয় দেওয়া হয়নি। পরে বাধ্য হয়ে সাকরাইল ষ্টেশনে এসে আশ্রয় নিই।

 

 

তিনি জানান যেদিন থেকে তিনি ষ্টেশনে আশ্রয় নিয়েছেন সেইদিন থেকে তার ধারেকাছে কোনও লোকজন আসেনি। এমনকি পুলিশ ও স্থানীয় মানুষজন তাকে খাবার দিয়েছে সেটা খেয়ে কোনরকমে দিন কাটাচ্ছেন। শনিবার সকালে ষ্টেশনে গিয়ে দেখা যায় একপ্রান্তে শুয়ে আছেন পান্নলাল দে। চোখে মুখে হতাশার ছাপ। তার একটাই প্রশ্ন যখন অন্য জায়গায় করোনা জয়ীদের এলাকায় ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে তখন তার ক্ষেত্রে কেন এই অবিচার। যদিও বেলার দিকে মানিকপীর ফাড়ির পুলিশ ষ্টেশন থেকে পান্নালাল বাবুকে তার বাড়িতে পৌচে দেন। স্থানীয় সূত্রে খবর স্থানীয় পঞ্চায়েত থেকে তার সুবিধা অসুবিধা দেখার কথা বলা হয়েছে।

Related Articles

Back to top button
Close