fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

আসানসোলে নিষিদ্ধ পল্লী থেকে যৌন কর্মীর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার

শুভেন্দু বন্দোপাধ্যায়, আসানসোল: গলায় দড়ি দেওয়া এক যৌন কর্মীর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার করাকে কেন্দ্র করে রবিবার ভোরবেলা চাঞ্চল্য ছড়ালো আসানসোলের কুলটি থানার নিয়ামতপুরের লছিপুর গেট নিষিদ্ধ পল্লীতে। মৃত যৌন কর্মীর নাম পিঙ্কি বিশ্বাস (২২)। তার বাড়ি উত্তর ২৪ পরগনার বাগদা থানা এলাকায়।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, পিঙ্কি বিশ্বাস বেশ কয়েক বছর ধরেই নিয়ামতপুরের লছিপুর গেট সংলগ্ন নিষিদ্ধ পল্লীতে রয়েছ। তার স্বামীও আছে। রবিবার ভোরবেলায় স্বামী পিঙ্কিকে ঘরের মধ্যে গলায় দড়ি দেওয়া ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পায়। সঙ্গে সঙ্গে তাকে আসানসোল জেলা হাসপাতালে নিয়ে আসা হলে চিকিৎসক মৃত বলে ঘোষণা করেন।

প্রাথমিক তদন্তের পরে পুলিশ জানায়, পিঙ্কি বিশ্বাস বেশ কিছুদিন ধরে আর্থিক সমস্যায় ভুগছিলো। বেশ কয়েকজনের কাছ থেকে সে টাকা ধার করেছিলো। তারা টাকা ফেরত চেয়ে তার উপর চাপ দিচ্ছিলো। যে কারণে পিঙ্কি বেশ কিছুদিন ধরে মানসিক অবসাদে ভুগছিলো। সম্ভবতঃ সেই কারণেই এই যৌন কর্মী গলায় দড়ি দিয়ে আত্মঘাতী হয়েছে। পুলিশের তরফে এদিন সকালে যৌন কর্মীর বাড়িতে খবর দেওয়া হয়েছে। বাড়ির লোকেরা সোমবার এলে, তারপর আসানসোল জেলা হাসপাতালে যৌন কর্মীর মৃতদেহর ময়নাতদন্ত হবে।

Related Articles

Back to top button
Close