fbpx
অন্যান্যঅফবিটহেডলাইন

করোনার আবহে রাখিতে কী উপহার দেবেন ভাবছেন? রইল সমাধান

দোয়েল দত্ত: প্ৰতি বছরের মতো এবারও দোরগোড়ায় রাখি৷ ভাইবোনের দুষ্টুমিষ্টি সম্পৰ্কের মধ্যে রাখি নিয়ে দুতরফের মধ্যেই থাকে উত্তেজনা৷ আর কারণটা অবশ্যই উপহার৷ ভাই ও বোন দুজনে দুজনের জন্য কী উপহার কিনবে তা জানতে মুখিয়ে থাকে দুপক্ষই৷ এখনকার অনলাইন কেনাকাটার যুগে আর হাতে সময় কম থাকায় সকলেই মাউসের একটা ক্লিকের উপরে নিৰ্ভরশীল৷ তাছাড়া এবার করোনার জন্য পরিস্থিতিও আলাদা৷ বেশিরভাগের পক্ষেই দোকানে গিয়ে বা শপিংমল ঘুরে আগের মতো বাছাই করে কেনা সম্ভব নয়৷ তাই উইন্ডোশপিং হোক বা অনলাইন ভরসা রাখতে হবে মোবাইলের উপরেই আর বিভিন্ন শপিং সাইটের উপরে৷ তবে চট করে কিছু অর্ডার করার আগে সাইটটির গ্ৰহণযোগ্যতা বিচার করে নেবেন৷

ভাইদের জন্য উপহার

গ্যাজেটনিৰ্ভর: ভাই যদি টেকফ্ৰেন্ডলি হয়, তাহলে তাকে গ্যাজেটনিৰ্ভর কোনওকিছু উপহার দেওয়া সবচেয়ে ভালো ৷ বিশেষ করে ভাই যদি হয় ইঞ্জিনিয়ারিং-এর ছাত্ৰ, বা সদ্য পাশ করে চাকরিতে ঢুকেছে৷ মোবাইল, আইপড, পেনড্ৰাইভ, ডিজিট্যাল ক্যামেরা, পোৰ্টেবল মিনি ইউএসবি ফ্ৰিজ কুলার, ডিজিট্যাল স্মাৰ্ট ওয়াচ, পাওয়ার ব্যাংক, ওয়্যারলেস ডাটা কাৰ্ড, ওয়্যারলেস ইয়ারফোন এসব ক্ষেত্ৰে আদৰ্শ অপশন৷ তবে বাজেট একটু বেশি রাখতে হবে৷ পেনড্ৰাইভ যেমন কয়েকশো টাকায় পেয়ে যাবেন, তেমনি ডিজিট্যাল ক্যামেরার জন্য খরচ করতে হবে কয়েক হাজার টাকা৷ আপনার সাধ আর সাধ্যমতো বেছে নিন কোনও একটাকে৷

পোশাক : টি শাৰ্ট বা ডেনিম দিতে পারেন৷ অনলাইন সাইটগুলোতে সারা বছর সেল চলে৷ দাম মোটামুটি ৫৫০ টাকা থেকে শুরু হবে৷

অফিস অ্যাকসেসরিজ: ভাই বা দাদা যদি পুরোদস্তুর অফিসবাবু হন, তাহলে রাখির উপহার হিসাবে অফিস অ্যাকসেসরিজ-এর মতো ভালো আর কিছু হয় না৷ ঘড়ির সঙ্গে পেনস্ট্যান্ড (৫০০টাকা থেকে শুরু), কাস্টমাইজড সুপার ডায়েরি (৭৭৫ টাকা), পেনের শখ থাকলে পার্কার বা পিয়ের কাৰ্ডিন-এর মতো শৌখিন পেন যে কোনও একটা বেছে নিতে পারেন৷

সুগন্ধি: বেরোনোর সময়ে ডিও বা সেন্ট লাগান না এমন ছেলে খুঁজে পাওয়া একটু দুষ্করই বটে৷ ডিও আর সেন্ট একসঙ্গে করে গিফট হ্যাম্পার হিসাবে বা কোনও একটা আলাদা করেও দিতে পারেন৷ সবটাই নিৰ্ভর করছে আপনার বাজেটের উপর৷

সানগ্লাস: কোভিডের সময়ে চোখকে সুরক্ষিত রাখতে সানগ্লাসের কোনও বিকল্প নেই, একটু ভালো মানের সানগ্লাস শুরুই হচ্ছে ১০০০ টাকার উপর থেকে৷

টাই: স্টাইলিশ টাই ও পকেট স্কোয়্যার আপনার রাখি গিফটকে সম্পূৰ্ণ ভিন্নমাত্ৰা দেবে৷ দাম ৫০০টাকা থেকে শুরু৷

অন্যান্য: ফোটো কোলাজ, রিস্ট ওয়াচ, কফিমগ, শেভিং কিট আর অবশ্যই চকোলেট – রাখিতে ভাইকে দেওয়ার জন্য চিরকালীন এই উপহারগুলো কখনওই পুরনো হয় না৷ বিভিন্ন রেঞ্জের আছে অনলাইন সাইটগুলোতে৷

বোনদের জন্য উপহার

কোলাজফোটো: ছেলেবেলাকে ফিরে পেতে কে না চায়৷ আর এক্ষেত্ৰে ফোটো কোলাজ করে দেওয়ার কোনও বিকল্প হয় না৷ বোনকে ওর ছেলেবেলার কয়েকটি ফোটো নিয়ে কোলাজ করে বাঁধিয়ে দিন৷

পেডিকিওর ও ম্যানিকিওর সেট: কোভিডের জন্য স্যাঁলোতে গিয়ে পেডিকিওর বা ম্যানিকিওর করাতে অনেকেই ভরসা পাচ্ছে না৷ তার উপর বাড়িতে ডেকে করাতে হলে খরচ অনেক৷ তাই সবচেয়ে ভালো হয় বোনকে যদি এর কোনও একটা উপহার দিতে পারেন৷ দাম মোটামুটি ১০০০ টাকা থেকে শুরু৷

ব্যাগ: মেয়েরা সাধারণত ব্যাগ সম্পৰ্কে ভীষণ স্পৰ্শকাতর হয়৷ যতই ব্যাগ থাকুক, কেউ নতুন উপহার দিলে পেতে খারাপ লাগে না৷ আর অফিস যাওয়ার ব্যাপার থাকলে তো কথাই নেই৷ ব্যাগের উপরে বোনের নাম লিখে এমব্লেম করে কিংবা সুন্দর পাৰ্স, ডিজাইনার ক্লাচ দিতে পারেন৷ দাম মোটামুটি ৮০০-১০০০ থেকে শুরু৷

ইকো ফ্ৰেন্ডলি উপহার: বোন যদি ঘর সাজাতে ভালোবাসে তাহলে এই মুহূৰ্তে ওর জন্য ইকোফ্ৰেন্ডলি উপহার সবচেয়ে ভালো, ছোট গাছ, বনসাই, সঙ্গে গণেশের মূৰ্তি, এক লহমায় ঘরের চেহারাটাই বদলে দেবে৷

মেকআপ কিট: আপনার বোনটি কি সাজতে ভালোবাসে? কিন্তু এসময়ে কোথাও যেতে পারছে না? তাহলে অনলাইন সাইটগুলি সাৰ্চ করে ওকে দিতে পারেন আইলাইনার, আইশ্যাডো, লিপস্টিক, মাস্কারা সহ মেকআপ কিট, দাম ১৫০০ টাকা থেকে শু্রু৷

গয়না: বোনকে গয়না দিতে চাইলে কোভিডের বাজারে পকেটে টান ফেলবেন না অথচ বোনের পছন্দ হবে, সেক্ষেত্ৰে প্ৰায়োরিটি দিন মুক্তোর গয়নাকে৷ ছোট্ট দুল বা একফালি হারই এনে দেবে আলাদা এলিগ্যান্সি৷ কিংবা জুয়েলারি বক্স৷

বিবাহিত বোন: বোনের যদি বিয়ে হয়ে গিয়ে থাকে, তাহলে ডবল বেডের বেডকভার, কফিমগের সেট, কাপ (যাতে দুজনের ছবি আঁকা) দিতে পারেন৷ দাম শুরু ৫০০ টাকা থেকে৷

গ্যাজেট: পাওয়ার ব্যাংক, ওয়্যারলেস ডাটাকাৰ্ড, কিন্ডল ই রিডার. ওয়্যারলেস ইয়ারফোন. পেনড্ৰাইভ, ক্যালোরিওয়াচ (এখন সব মেয়েই কমবেশি ফিগার সচেতন, কাজেই এই ঘড়ি দিলে বোন খুশিই হবে), ওয়্যারলেস চাৰ্জিং প্যাড বোনকে দিতে পারেন৷ আর সবচেয়ে ভালো হয় এক্ষেত্ৰে বোনের প্ৰয়োজনীয়তাটা জিজ্ঞেস করে নেন৷

ফ্যাশনে ইন: সালোয়ার কামিজ, কুৰ্তি, ট্যাসেলসমেত কানের দুল আর একবাক্স চকোলেট পেলে বোন খুশি না হয়ে যাবে কোথায়৷ অনলাইনে বুকিং করে দিন সোজা ওর বাড়ি পৌঁছে যাবে৷

Related Articles

Back to top button
Close