fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

কাটোয়ায় সেফ হোম পরিদর্শনে স্বাস্থ্যদফতরের রাজ্যস্তরের তিন সদস্যের প্রতিনিধিদল

দিব্যেন্দু রায়, কাটোয়া: সেফ হোম পরিদর্শন করতে শুক্রবার কাটোয়ায় এলেন স্বাস্থ্যদফতরের রাজ্যস্তরের তিন সদস্যের প্রতিনিধিদল। ওই প্রতিনিধি দলে ছিলেন ব্রীজেশ চট্টোপাধ্যায়, গণেশ গায়েন এবং উজ্বল বিশ্বাস নামে তিন উচ্চপদস্থ আধিকারিক ছিলেন বলে দফতর সূত্রে জানা গেছে। সেফ হোমের পাশাপাশি তারা কাটোয়া মহকুমা হাসপাতালের বিভিন্ন ওয়ার্ডগুলিও পরিদর্শন করেন।

কাটোয়া পুরসভার ১৭ নম্বর ওয়ার্ড এলাকায় পুরসভার কমিউনিটি হলে চালু করা হয়েছে সেফ হোম। এদিন স্বাস্থ্যদফতর উচ্চ পর্যায়ের তিন আধিকারিক প্রথমে কাটোয়ার সেফ হোম পরিদর্শন করেন। তারপর তাঁরা কাটোয়া হাসপাতালের ওয়ার্ডগুলি পরিদর্শন করতে যান। তাঁরা এই নিয়ে দফতরে একটি রিপোর্ট দেবেন বলে জানা গেছে। যদিও আধিকারিকদের পক্ষ থেকে সংবাদমাধ্যমের কাছে কেউ মুখ খোলেননি। তবে তাঁরা সেফ হোম ও হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে সন্তোষপ্রকাশ করেছেন বলে দফতর সূত্রে জানা গেছে।

আরও পড়ুন: রাজনৈতিক চাপান-উতোর, তৃণমূলের দিকে আঙুল তুলে প্রাণনাশের আশঙ্কার অভিযোগ বিজেপির

কাটোয়া পুর এলাকায় মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১০৭ জন। তবে এখনও পর্যন্ত করোনায় মৃত্যুর কোনও খবর নেই। তার মধ্যে প্রায় ৫০ জন করোনা আক্রান্ত সেফ হোমে থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। এদিন পর্যন্ত সেফহোমে চিকিৎসাধীন ছিলেন ৪ জন।

কাটোয়া পুরসভার চেয়ারম্যান ইনচার্জ তথা স্থানীয় বিধায়ক রবীন্দ্রনাথ চট্টোপাধ্যায় বলেন, “পুরসভা এলাকায় সেফ হোম চালু করে অনেক সুবিধা হয়েছে। কারণ আক্রান্তের সংখ্যা একসঙ্গে বেশি হলে চিকিৎসার জন্য বর্ধমান পাঠাতে অসুবিধা হচ্ছিল। সেফ হোমের চিকিৎসাও অনেক ভালো। আক্রান্তরা তাড়াতাড়ি সুস্থ হয়ে উঠছেন৷

Related Articles

Back to top button
Close