fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

অস্ত্র ও শ্লীলতাহানির অভিযোগে গ্রেফতার এক তৃণমূল যুবনেতা

তারক হরি, পশ্চিম মেদিনীপুর: মেদিনীপুর শহরে গ্রেফতার হলেন তৃণমূলের এক যুব নেতা। শহরের ২৪ নং ওয়ার্ডে তৃণমূলের যুব নেতা ছিলেন সনু ঠাকুর। শহরের রাঙামাটির একটি এলাকা থেকে ওই যুব নেতাকে গ্রেফতার করে কোতওয়ালি থানার পুলিশ সোমবার মেদিনীপুর সিজিএম আদালতে তোলে। ধৃত সনু ঠাকুরকে ৫ দিনের পুলিশি হেফাজতে রাখার নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক।

তাঁর বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ইউ/এস ৪৫১, ৩২৫,৩২৬,৩৫৪, ৩৭৯ ও অস্ত্র আইন ২৫, ২৭ ধারার মামলা রুজু করেছে পুলিশ। যদিও সনুর কাছ থেকে কোনো অস্ত্র পাওয়া যায়নি বলে জানান সরকারি পক্ষের আইনজীবী সৈয়দ নাজিম হাবিব। আইনজীবী বলেন, ” সনু ঠাকুররের বিরুদ্ধে মারপিট ও শ্লীলতাহানির অভিযোগ রয়েছে, অস্ত্র উদ্ধারের জন্য পুলিশ সনুকে নিজেদের হেফাজতে নিয়েছে।”

 আরও পড়ুন: ফের উত্তপ্ত সীমান্ত, সংঘর্ষবিরতি চুক্তি লঙ্ঘন করল পাকিস্তান, পাল্টা জবাব ভারতের

অন্যদিকে বিজেপির জেলা সভাপতি সুমিত কুমার দাস বলেন, ‘পুরসভা ভোটকে সামনে রেখে তৃণমূল কিছু দুষ্কৃতীদের সঙ্গে নিয়েছে, সনু ঠাকুরের গ্রেফতার হওয়া এটা তৃণমূলের গোষ্ঠী কোন্দলের ফল।’  যদিও এই বিষয় নিয়ে তৃণমূলের যুব নেতারা কেউ মুখ খুলতে নারাজ। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক নেতার বক্তব্য, ‘কোথায় কে কি করে বসবে, তার দায় ভার দল নেবে না! বিরোধীপক্ষ একেবারে ছেড়ে কথা বলছে না।‘ এই ঘটনায় রীতিমতো গুঞ্জন শুরু হয়ে গেছে জেলা জুড়ে।

Related Articles