fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

৭০ বছরে ইতিহাস, দেশীয় পদ্ধতিতে ইঞ্জিন তৈরি করে ইতিহাস গড়ল চিত্তরঞ্জন রেল ইঞ্জিন কারখানা

শুভেন্দু বন্দোপাধ্যায়, আসানসোল: চিত্তরঞ্জন রেল ইঞ্জিন কারখানায় শনিবার করোনা আবহে বিভিন্ন সতর্কতামূলক নির্দেশিকা পালনের মধ্যে দিয়ে ৭৪ তম স্বাধীনতা দিবস পালনের অনুষ্ঠান পালিত হয়। কারখানার মহাপ্রবন্ধক বা জেনারেল ম্যানেজার প্রভীন কুমার মিশ্র ওভাল ময়দানের অনুষ্ঠানে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন। কারখানার মহিলা কল্যাণ সংগঠনের সভাপতি সুনিতা মিশ্র, সংগঠনের অন্যান্য সদস্য, কারখানার আধিকারিক, স্টাফ কাউন্সিলের সদস্যরা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। দেশের ৭৪ তম স্বাধীনতা দিবসে  কারখানার ৭০ তম বর্ষপূর্তি উপলক্ষে নির্মিত একটি তথ্যচিত্র ও “ইঞ্জিন অফ চেঞ্জ” নামক ডিজিটাল বইয়ের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন জেনারেল ম্যানেজার। তিনি করোনা যোদ্ধাদের সম্মানিত করেন ও তাদের সেবামূলক কাজের প্রশংসা করেন।

প্রভীন কুমার মিশ্র কারখানার সাম্প্রতিককালের সাফল্যের কথা তুলে ধরে অত্যাধুনিক প্রযুক্তি-সমৄদ্ধ উন্নতমানের ইঞ্জিন উৎপাদনের পরিকল্পনার উপরে জোর দেন। তিনি বলেন, কারখানায় চলতি বছরের ৩১ জুলাই পর্যন্ত ২,৩৫১টি বাষ্পীয় রেল ইঞ্জিন, ৮৪২টি ডিজেল ইঞ্জিন ও ৭,২৭৪টি ইলেকট্রিক ইঞ্জিন সফলতার সঙ্গে উৎপাদন করেছে।

সবমিলিয়ে এই বছরে এখনও পর্যন্ত ১০ হাজারেরও বেশি রেল ইঞ্জিন তৈরী করে ফেলেছে এই কারখানা। তিনি উল্লেখ করে বলেন যে, কর্মী ও আধিকারিকদের অক্লান্ত প্রচেষ্টায় এই সফলতা এসেছে। ২০১৯-২০ আর্থিক বছরে পুরনো রেকর্ড ভেঙ্গে ৪৩১ টি ইলেকট্রিক ইঞ্জিন উৎপাদনের মাধ্যমে বিশ্বের বৃহত্তম ইলেকট্রিক রেল ইঞ্জিন উৎপাদকের শিরোপা নিয়ে চিত্তরঞ্জন রেল ইঞ্জিন কারখানা এক নতুন গৌরবময় অধ্যায়ের সূচনা করেছে।

[আরও পড়ুন- নাবালককে হাত-পা বেঁধে চাবুক পেটা তৃণমূল নেতার]

তিনি আরও বলেন যে, কারখানা ইঞ্জিন উৎপাদনের মধ্যে সীমিত না থেকে, বর্তমান মহামারী পরিস্থিতির প্রেক্ষাপটেও জাতির স্বার্থে উল্লেখযোগ্য অবদান রেখেছে। লকডাউনের কারণে ইঞ্জিন উৎপাদনের কাজ স্থগিত হলেও, কারখানার কর্মীদের উৎসাহে কোন ঘাটতি হয়নি। তারা এই পরিস্থিতিতেও ৯০টি আইসোলেশন বেড, মেডিকেল টেবিল, কর্মী ও তাদের পরিবারের জন্য ফেস মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার, রিমোট কন্ট্রোল ট্রলি, কর্মীদের জন্য পিপিই তৈরীর মতো প্রশংসনীয় কাজ করেছেন।

চলতি আর্থিক বছরের ৩১শে জুলাই পর্যন্ত কোভিড ১৯ এর বাধা অতিক্রম করে, ৬২ টি ইঞ্জিন ইতিমধ্যেই উৎপাদন করা হয়েছে। চিত্তরঞ্জন রেল ইঞ্জিন কারখানার ডানকুনি ইউনিট চলতি আর্থিক বছরের (২০২০-২১) ৩১  জুলাই পর্যন্ত কোভিড-১৯র বাধা সত্বেও ৫টি বৈদ্যুতিক রেল ইঞ্জিন উৎপাদন করেছে। ডানকুনি ইউনিট জন্মলগ্ন থেকে এখনও পর্যন্ত সর্বমোট ১৪৫ টি রেল ইঞ্জিন নির্মাণ করেছে।

 

 

Related Articles

Back to top button
Close