fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণহেডলাইন

ইএসআই হাসপাতালে পার্থকে লক্ষ্য করে জুতো ছুড়লেন এক মহিলা

যুগশঙ্খ, ওয়েবডেস্ক: পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে জুতো ছুড়ে মারলেন এক মহিলা। মঙ্গলবার পার্থ ও অর্পিতা মুখোপাধ্যায়কে আদালতের নির্দেশ অনুযায়ী যে স্বাস্থ্য পরীক্ষা করানো হয়, তার জন্য ইএসআই হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। এর পরে ঘটে বিপত্তি। স্বাস্থ্য  পরীক্ষার পর গাড়িতে ওটার সময় জুতো এসে পরে তার গাড়িতে।  দেখা যায় এক মহিলা তার দিকে জুতো ছুড়েছেন। সংবাদমাধ্যম তাকে ঘিরে ধরতেই আটপৌড়ে শাড়ি পরা ওই গৃহবধূ বলেন, ছেড়ে দিন আমাকে। আমি ওষুধ কিনতে এসেছি। সংবাদমাধ্যম তাকে জিজ্ঞাসা করেন, কেন তিনি এক কাজ করলেন? তার উত্তরে রীতিমতো ক্ষিপ্ত হয়ে ওই গৃহবধূ বলেন, ‘কেন জানেন না আপনারা? এত টাকা উদ্ধার হয়েছে? চাকরি দেওয়ার নামে গরীব মানুষের টাকা নিয়েছে। আর নিজে ফূর্তি করছে। যেখানে মানুষ খেতে পায় না। খুব খুশি হতাম যদি জুতোটা ওনার টাকে গিয়ে লাগত। আবার ওনাকে এসি গাড়ি করে হুইল চেয়ারে করে নিয়ে আসছেন? গলায় দড়ি বেধে টানতে টানতে নিয়ে আসুন’।

মহিলার পরনে সাধারণ শাড়ি, তার সঙ্গে গোলাপি রঙের ব্লাউজ। মুখে মাস্ক দেওয়া রয়েছে। কাঁধে একটি ব্যাগ। যখন তিনি হাসপাতাল চত্বর থেকে হনহন করে বেরিয়ে যাচ্ছেন, তখন তার পিছনে সাংবাদিকরা ছুটতে শুরু করেছেন।

সাংবাদিকদের তিনি আরও জানান, তার পায়ে জুতো নেই। বাকি রাস্তাটা খালি পায়েই যাবেন তিনি।

মহিলার বাড়ি দক্ষিণ ২৪ পরগনার আমতলা এলাকায়। তার নাম শুভ্রা ঘোড়ুই। তার মেয়ে দ্বাদশ শ্রেণীর ছাত্রী। সাংবাদিকরা ঘিরে ধরতেই শুভ্রা জানান, তার বাড়ির লোক অসুস্থ। হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। ওষুধ কিনতে যেতে হবে। দয়া করে আমাকে ছেড়ে দিন। আমি হাই পাওয়ারের ওষুধ খাচ্ছি। এরপরেই শুভ্রা ঘোড়ুই কাঁধে ব্যাগ নিয়ে হনহন করে হাঁটতে থাকেন।

 

 

Related Articles

Back to top button
Close