fbpx
কলকাতাহেডলাইন

অমনবিক ঘটনা! ১৩ ঘন্টা ধরে বেহালা ১১৯ নম্বর ওয়ার্ডে পরে রইল করোনা মৃতদেহ

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা:  করোনা মৃতদেহ নিয়ে শহরজুড়ে একের পর এক অমানবিক ঘটনা ঘটেই চলেছে। ঘন্টার পর ঘন্টা কেটে গেলেও করোনা মৃতদেহ তুলে নিয়ে যাওয়ার কোনো উদ্যোগ নেই। রবিবারের পর সোমবারও এই অমানবিক ঘটনার সাক্ষী হয়ে রইল শহর কলকাতা। বেহালার ১১৯ নম্বর ওয়ার্ডে ১৩ ঘণ্টা ধরে বাড়িতে পড়ে রইল করােনায় আক্রান্তের মৃতদেহ। সােনারপুর, শ্যামপুকুরের পর এবার বেহালার সাহাপুর যেন রােডে এই অমানবিক আচরণের অভিযােগ উঠল।

আরও পড়ুন: রাজ্যজুড়ে নারী নির্যাতনের প্রতিবাদে বিজেপির মহিলা মোর্চার বিক্ষোভ

পরিবারের দাবি , রবিবার রাত ১২ টায় ষাটোর্ধ্ব গৃহকর্তার মৃত্যু হয়। তারপর থেকে স্থানীয় প্রশাসনের গাফিলতিতে এদিন বেলা দেড়টা অবধি পরে থাকে। প্রায় বেলা দেড়টা নাগাদ বেহালা থানার তরফে দুজন পুলিশকর্মী আসেন। এরপর ওই ব্যক্তির মৃত দেহ সরানো হয়। এ বিষয়ে পার্থ চট্টোপাধ্যায় জানান, খবর পাওয়া মাত্রই প্রশাসনকে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করতে বলেছি। একই সঙ্গে ওই পরিবারের আরও তিন জন কোরোনা সংক্রমিত। স্থানীয় বাসিন্দা দের মতে মৃত্যুর পর স্থানীয় প্রশাসন থেকে কাউন্সীলর, বিধায়ক সকলকে জানানোর পরও মৃতদেহ সরাতে দীর্ঘসূত্রতা হয়।

Related Articles

Back to top button
Close