fbpx
আন্তর্জাতিকআমেরিকাগুরুত্বপূর্ণদেশহেডলাইন

‘চিন নিয়ে মুড অফ মোদির’, এমনটাই জানালেন মার্কিন রাষ্ট্রপতি

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: লাদাখ সীমান্তে ভারতীয় এবং চিন সেনার দ্বন্দ্ব আর জানতে বাকি নেই কারোর। কার্যত যুদ্ধের পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। এরই মাঝে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের দাবী, চিন নিয়ে তাঁর এবং মোদির মধ্যে কথা হয়েছে। এবং এই বিষয়ে মোদির মুড অফ।

 

যদিও আধিকারিকদের দাবি, শেষবার গত ৪ এপ্রিল কথা হয়েছিল এই দুই রাষ্ট্রনেতার। সূত্র জানিয়েছে, সম্প্রতি ট্রাম্পের সঙ্গে মোদীর কোনও কথা হয়নি। দাবি করা হয়েছে, ‘২০২০ সালের ৪ এপ্রিল ট্রাম্প ও মোদীর মধ্যে শেষবার কথা হয়েছিল হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন নিয়ে।’ কোভিডের চিকিত্‍‌সায় ব্যবহৃত এই ওষুধ আমেরিকায় পাঠিয়েছিল ভারত।

 

 

 

 

তবে ট্রাম্প হোয়াইট হাউসে সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে কথাবার্তায় দাবী করেছেন যে, তিনি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে কথা বলেছেন। ভারত ও চিনের মধ্যে বিরাট দ্বন্দ্ব নিয়ে মুড ভালো নেই মোদির। বৃহস্পতিবার তিনি বলেন, ‘ভারতে ওরা আমায় পছন্দ করেছিলেন। এই দেশে সংবাদমাধ্যম আমাকে যতটা পছন্দ করে, তার থেকে ওরা আমায় বেশি পছন্দ করে বলে আমার ধারণা। এবং আমিও মোদীকে পছন্দ করি। আপনাদের প্রধানমন্ত্রীকে খুবই পছন্দ করি। তিনি একজন মহান ভদ্রলোক। ভারত ও চিনের মধ্যে বিরাট দ্বন্দ্ব রয়েছে। দুই দেশের প্রত্যেকটিকে জনসংখ্যা ১.৪ বিলিয়ন। দুই দেশেরই খুব শক্তিশালী সেনাবাহিনী। ভারত খুশি নয়, হয়তো চিনও খুশি নয়।’

 

 

ট্রাম্প আরও বলেন, ‘এটুকু বলতে পারি, প্রধানমন্ত্রীর মোদির সঙ্গে কথা বলেছি। চিনের সঙ্গে যা চলছে, তা নিয়ে তিনি খুশি নন।’ এক দিন আগেই চিনের বিদেশ মন্ত্রক দাবি করেছে, প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় পরিস্থিতি শান্তিপূর্ণ। এ দিকে, ভারত-চিন সীমান্ত সমস্যা মেটাতে মধ্যস্থতার প্রস্তাব দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। সে প্রস্তাবের ব্যাপারে প্রশ্ন করা হলে ভারতের বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র অনুরাগ শ্রীবাস্তবও বৃহস্পতিবার বলেন, ‘আমরা শান্তিপূর্ণভাবে সমস্যার সমাধান করতে চিনের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছি।’

Related Articles

Back to top button
Close