fbpx
কলকাতাহেডলাইন

পরীক্ষা পদ্ধতি সরলীকরণের দাবি এবিভিপির

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: পরীক্ষা পদ্ধতি সরলীকরণের মাধ্যমে অতি দ্রুত ছাত্র-ছাত্রীদের বিভ্রান্তি দূর করতে হবে। এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এমনটাই দাবি জানিয়েছে অখিল ভারতীয় বিদ্যার্থী পরিষদ বা এবিভিপি। পাশাপাশি কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের চূড়ান্ত বর্ষের পরীক্ষা পদ্ধতি নিয়েই বিভ্রান্তি সৃষ্টি হয়েছে বলে জানায় এই ছাত্র সংগঠন।

 

ইউজিসি নির্দেশিকা পাওয়ার পর কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় বৈঠক করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, প্রশ্নপত্র পাওয়ার দু ঘন্টার মধ্যেই উত্তর পত্র জমা দিতে হবে অনলাইনে। এই বিষয়টি সোনার পারে পড়ুয়াদের মধ্যে বিভ্রান্তি সৃষ্টি হচ্ছে বলে দাবি করে এবিভিপি। এই পুরো বিষয়টি সরলীকরণ করতে হবে এবং একই সঙ্গে উত্তর পত্র জমা দেয়ার সময়সীমা বাড়াতে হবে বলে দাবি তোলে তারা।

[আরও পড়ুন- শহর জুড়ে কোথায় কেমন বিজ্ঞাপন হবে, ঠিক করবে পুরসভা]

 

এই বিষয়ে অখিল ভারতীয় বিদ্যার্থী পরিষদ এর রাজ্য সম্পাদক (দক্ষিণবঙ্গ) সুরঞ্জন সরকার বলেন, “বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে সকল ছাত্র-ছাত্রীর পরীক্ষার জন্য যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। আর পরীক্ষার কয়েকদিন আগে এই রকম বিভ্রান্তিকর সিদ্ধান্তের ফলে যদি কোন ছাত্র-ছাত্রী পরীক্ষা দেওয়া থেকে বঞ্চিত হয় সেই দায়ভার বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে নিতে হবে “।

 

এরপরেই কয়েকটি দাবি জানায় এবিবিপি।

 

১. বিষয়ভিত্তিক ভাবে পরীক্ষার সময়সূচি স্পষ্টীকরণ করতে হবে।

২. বিষয়ভিত্তিক ভাবে পরীক্ষার পূর্ণমান স্পষ্টীকরণ করতে হবে।

৩. প্রশ্নপত্রের ধরন স্পষ্টীকরণ করতে হবে ।

৪. উত্তর পত্র জমা দেওয়ার ক্ষেত্রে অনলাইন ও অফলাইন ব্যবস্থা চালু রেখে জমা পদ্ধতি সরলীকরণ করতে হবে।

৫. উত্তরপত্র জমা দেওয়ার সময়সীমা বাড়াতে হবে।

Related Articles

Back to top button
Close