fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

আদিবাসী ছাত্র-ছাত্রীদের পড়াশোনায় ফেরাতে সহযোগিতার হাত এবিভিপির

প্রদীপ্ত দত্ত, সিউড়ি : লকডাউনের কারণে জেলার বিভিন্ন স্কুলে বন্ধ হয়ে গেছে স্বাভাবিক পড়াশোনা। নামি কিছু বেসরকারি স্কুলে অনলাইনের মাধ্যমে পড়াশুনা চললেও তা চলছে সিমীত সংখ্যক কিছু ছাত্র-ছাত্রীদের মাধ্যমে। বিশেষ করে স্বচ্ছল পরিবারের ছেলেমেয়েরা এই সুযোগ পেলেও পড়াশোনা একেবারে বন্ধ হয়ে গেছে জেলার আদিবাসী এলাকার ছেলেমেয়েদের।

লকডাউনের কারণে খাবার জোটাতে পারছে না আদিবাসী এলাকার মানুষেরা। সেখানে ছেলেমেয়েদের পড়াশোনার জন্য বই , খাতা , পেন জোগাড় করা একপ্রকার অসম্ভব এইসব আদিবাসী পরিবারের লোকদের । এবার আদিবাসী ছেলেমেয়েদের সহযোগিতায় এগিয়ে এল  বিজেপির ছাত্র সংগঠন অখিল ভারতীয় বিদ্যার্থী পরিষদ  । সিউড়ির ১ নম্বর ব্লকের হরিপুর ,ভূরকূনা সহ বেশ কিছু গ্ৰামের আদিবাসী ছেলেমেয়েদের হাতে পড়াশোনার জন্য বই,      খাতা, পেন, পেন্সিল তুলে দিল এবিভিপির বীরভূম শাখা। উপস্থিত ছিলেন রাজ্য কমিটির সদস্য অনির্বাণ ভান্ডারি সহ সংগঠনের সদস্যরা।

অনির্বাণ ভান্ডারি মঙ্গলবার জানান , ” এই আদিবাসী মানুষদের নিয়ে ভাবার কেও নেই। এদের না আছে কাজ, না খাবার জোটানোর ব্যাবস্থা। সবচেয়ে খারাপ অবস্থা আদিবাসী এলাকার স্কুলগুলোর ও তার ছাত্র-ছাত্রীদের। অখিল ভারতীয় বিদ্যার্থী পরিষদের তরফ থেকে এইসব আদিবাসী ছেলেমেয়েদের পড়াশোনা যাতে একেবারে বন্ধ না হয়ে যায় ,তারজন্য ৫০০ ছেলেমেয়েদের হাতে বইপত্র ও প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র তুলে দিলাম। “।

সেইসঙ্গে তিনি আবেদন জানান , সিউড়ি সংলগ্ন আদিবাসী গ্ৰামগুলোতে মানুষ কষ্টের সঙ্গে দিনযাপন করছে। পড়াশোনা বন্ধ হয়ে গেছে একপ্রকার ছেলে মেয়েদের। এই কঠিন সময়ে এদের দিকে হাত বাড়িয়ে দিক জেলা প্রশাসন ও সরকার।

Related Articles

Back to top button
Close