fbpx
গুরুত্বপূর্ণপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

নারায়নগড়ে এবিভিপি কর্মীদের বেধড়ক প্রহার, অভিযোগের তীর শাসকের দিকে, অভিযোগ নিতে অস্বীকার পুলিশের

অভিষেক গঙ্গোপাধ্যায়, কলকাতা: পশ্চিম মেদিনীপুরের নারায়নগড়ের ঘটনায় রাজ্য জুড়ে প্রতিবাদ আন্দোলনের ডাক দিল অখিল ভারতীয় বিদ্যার্থী পরিষদ। এদিন বিবৃতি প্রকাশ করে এমনটাই জানায় এবিভিপি। বৃহস্পতিবার নারায়নগড় পরিদর্শনে গিয়ে আহত এবিভিপি কর্মীদের সঙ্গে কথা বলে রাজ্য জুড়ে আন্দোলনের ডাক দেওয়া হয় এবিভিপির পক্ষ থেকে। একই সঙ্গে ঘটনার তীব্র নিন্দা জানান এবিভিপি দক্ষিণবঙ্গ প্রান্তীয় সম্পাদক সুরঞ্জন সরকার। তিনি বলেন, ‘রাজ্য জুড়ে যে খুনি রাজনীতির বাতাবরন তৈরি হয়েছে তার অন্য আরেক নিদর্শন নারায়ন গড়ের ঘটনা। রাজনৈতিক মত পার্থক্য থাকতেই পারে কিন্তু এবিভিপি খুনি রাজনীতিতে বিশ্বাসী নয়। তাই প্রতিবাদে আমরা রাজ্য জুড়ে আন্দোলনের ডাক দিয়েছি।’ এদিন সকলেই সুরঞ্জন সরকারের নেত্রীত্বে রাজ্য এবিভিপি’র এক প্রতিনিধি দল ঘটনা স্থল পরিদর্শনে ও আহত এবিভিপি কর্মীদের সঙ্গে কথা বলতে কলকাতা থেকে রওনা দেয়।

উল্লেখ্য, শুক্রবার পঃ মেদিনীপুর জেলার নারায়ণগড় নগর ইউনিটে আগামী ২০শে সেপ্টেম্বর মাতৃভাষা দিবসের কার্যক্রমের প্রস্ততি বৈঠক করে ফেরার পথে প্রায় ৫০-৬০জন তৃণমুল আশ্রিত সশস্ত্র বাহিনী এবিভিপির কার্যকর্তাদের ওপর লাঠি, লোহার তার, ইট দিয়ে পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে প্রাণঘাতী হামলা চালায়। এবং মোবাইল নষ্ট করে দেয় এবং বাইকের চাবি আটকে রেখে অত্যাচার করা হয়। প্রাণে মেরে দেওয়ার হুমকি পর্যন্ত দেওয়া হয়। এই ঘটনায় পঃ মেদিনীপুর জেলা আন্দোলন সমিতির সহ সংযোজক সহ ৫ জন কার্যকর্তা গুরুতর ভাবে আহত হয়। একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি। তবে এই ঘটনায় পুলিশ এখনও পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি। পুলিশের কাছে ঘটনার লিখিত আভিযোগ জানাতে গেলে ডিউটি অফিসার প্রথমে তা নিতে অস্বিকার করেন। কিন্তু পরে জোর করে লিখিত অভিযোগ জমা দেওয়া হয় রাজ্য এবিভিপির পক্ষ থেকে। যদিও তার কোনও রিসিপ্ট কপি দেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ।সূত্রের খবর, এবিভিপির পক্ষ থেকে ইমেলের মাধ্যমে লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হতে পারে।

Related Articles

Back to top button
Close