fbpx
কলকাতাহেডলাইন

ত্রাণ-রেশন নিয়ে দুর্নীতি-অনিয়ম বা দলবাজি হলে তার বিরুদ্ধে প্রশাসন সবরকম ব্যবস্থা নেবে: মমতা

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা আর আমফানের জোড়া তাণ্ডবে বিপর্যস্ত রাজ্য। আর এই সুযোগ নিয়ে কার্যত বিরোধীরা বিশেষ করে বিজেপি নেতারা যে সরকার বিরোধী একটা জনমত গড়ে তোলার জন্য সর্বশক্তি দিয়ে ঝাঁপাবে, তা ভালই জানেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ‘ত্রাণ  আর ‘রেশনের নিয়ে দলের বিধায়ক এবং নেতাদের আগাম সতর্ক করে দিলেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, ‘ত্রাণ কিংবা রেশন নিয়ে কোনও রাজনীতি-দলবাজি করা যাবে না। সব দলের মানুষই যাতে রেশন আর ত্রাণ পান তা নিশ্চিত করতে হবে। দুর্নীতি-অনিয়ম বা দলবাজি হলে তার বিরুদ্ধে প্রশাসন সবরকম ব্যবস্থা নেবে। দল তার পাশে থাকবে না।’

তাই এদিন ফের একবার ত্রাণ আর রেশন নিয়ে দলীয় বিধায়ক-নেতাদের সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন, ‘মানুষের দুঃসময়ে ত্রাণ দেওয়ার ক্ষেত্রে রাজনৈতিক রঙ দেখা যাবে না। সব দলের নেতা, কর্মীরাই যাতে ত্রাণ পান, সেই বন্দোবস্ত করতে হবে। রেশন বা ত্রাণ বণ্টন নিয়ে কোনওরকম দুর্নীতি, অনিয়ম বা দলবাজি হলে প্রশাসন তাঁর বিরুদ্ধে সবরকম ব্যবস্থা নেবে। যিনি অনিয়ম বা দলবাজি করবেন, তার পাশে থাকবে না দল।’

আরও পড়ুন: ভারতে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তের সংখ্যা ৯ হাজার ৮৮৭, সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত মহারাষ্ট্র

সূত্রের খবর, বৈঠকে বিজেপির ফেক নিউজ নিয়ে সরব হন তৃণমূল সুপ্রিমো। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘রাজ্য সরকারের এবং তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে সোশ্যাল মিডিয়ায় অপপ্রচার চালানো হচ্ছে। ফেক নিউজ ছড়িয়ে মানুষকে বিভ্রান্ত করা হচ্ছে। ফেক নিউজ রুখতে নেতা ও কর্মীদের সক্রিয় হতে হবে। সোশ্যাল মিডিয়ায় আরও শক্তিশালী ও নিবিড় জনসংযোগ গড়ে তুলতে হবে মানুষের সঙ্গে। করোনা ও আম্ফান মোকাবিলায় রাজ্য সরকার কী ব্যবস্থা নিয়েছে, তা মানুষের দরজায়-দরজায় গিয়ে তুলে ধরতে হবে।’

 

 

Related Articles

Back to top button
Close