fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

আমফান পরবর্তী সুন্দরবনে এবার ভরা কোটালের আতঙ্ক

শ‍্যাম বিশ্বাস, উত্তর ২৪ পরগনা: ভরা কোটালে কোমর বেঁধে নামছে রাজ্য সরকার। বসিরহাট মহকুমার মিনাখাঁ ব্লকের আঁটপুকুর গ্রাম পঞ্চায়েতের কোকিলপুরে বিদ্যাধরী নদী বাঁধ প্রায় ১০০ ফুট ভেঙে বিস্তীর্ণ এলাকা জলমগ্ন।পাশাপাশি সন্দেশখালি, হিঙ্গলগঞ্জ, বসিরহাট, মিনাখা, হাড়োয়া, সুন্দরবন লাগোয়া ব্লকগুলোতে এখনও নদীবাঁধ ভেঙে ক্ষতিগ্রস্ত বহু গ্রাম। ত্রাণশিবিরে রয়েছেন লক্ষাধিক মানুষ।

সব মিলিয়ে শুক্রবার ভরা কোটালে নতুন করে আতঙ্কের ছায়া দেখছে সুন্দরবনের মানুষ। আমফানের পর চোখে-মুখে আতঙ্ক ছাপ নিয়ে কোনওরকমে খড়কুটো এক জায়গায় করে ঘর বাঁধার চেষ্টা চালাচ্ছে তারা। পাশাপাশি গবাদিপশু এখনও জল বন্দি অবস্থায় রয়েছে।

বৃহস্পতিবার উত্তর ২৪ পরগনা জেলার পূর্ত আধিকারিক নারায়ন গোস্বামী, বিধায়ক ঊষা রানী মন্ডল ও তৃণমূলের ব্লক সভাপতি মৃত্যুঞ্জয় মন্ডল তৃণমূলের যুব নেতা শরীফুল আলম মন্ডল উত্তর ২৪ পরগনা তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক সুরজিৎ মিত্র, মিনাখার বিডিও শেখ কামরুজ্জামান ও সেচ দফতরের আধিকারিকরা সরেজমিনে এলাকা পরিদর্শনে গেলেন।

একদিকে নদীর বাঁধ বালির বস্তা ফেলে আটকানোর চেষ্টা হচ্ছে। অন্যদিকে ত্রাণ শিবিরে আশ্রয় দুর্গতদের জন্য পর্যাপ্ত পরিমাণে খাবারের ব্যবস্থা করছে প্রশাসন।

১৫ দিন কেটে যাওয়ার পরেও আমফানের দগদগে ঘা এখনও মানুষের মধ্যে রয়েছে। যত সময় যাচ্ছে ধ্বংসাত্মক ছবি পরিস্কার হচ্ছে। তারপর ভরা কোটালে নতুন আতঙ্কের সুন্দরবনের মানুষ প্রহর গুনছে।

Related Articles

Back to top button
Close