fbpx
হেডলাইন

সংসদে ভাষণের পরই ‘জলসা’য় বাড়ল নিরাপত্তা, সতর্ক মুম্বই পুলিশ

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: মঙ্গলবার সংসদে ভাষণের পর থেকে টুইটারে ট্রোলিংয়ের শিকার হয়েছেন জয়া বচ্চন। ঝুঁকি না নিয়ে আগেভাগেই মুম্বইয়ের বাংলো ‘জলসা’-এর সামনে মোতায়েন করা হয়েছে নিরাপত্তরক্ষী।  জুহুতে বচ্চন পরিবারের বাংলো জলসার বাইরে  বাহিনীকে পাহারায় রেখেছে মুম্বই পুলিশ। আগাম সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নিতেই নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে বলে খবর। মঙ্গলবারের মন্তব্যের পর সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রোলের শিকার হন জয়া বচ্চন। নেটিজেনের একটা বড় অংশ তাঁর নিন্দায় সরব হন। ট্যুইটারে ট্রেন্ড করছিল #ShameOnJayaBachchan হ্যাশট্যাগ। তবে ৭২ বছরের অভিনেত্রী তাঁর মন্তব্যের জন্য বলিউডের একটা অংশ ও অন্যান্য মহল থেকে কুর্নিশও কুড়িয়েছেন।

উল্লেখ্য, গতকাল সংসদে অমিতাভ জায়া জয়া বচ্চন মন্তব্য করেছিলেন, মাদককাণ্ডে এমনভাবে বলিউডকে জড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে, যাতে মনে হচ্ছে পুরো বলিউডই এই নোংরা খেলায় জড়িত। কিন্তু তা নয়, সামান্য কয়েকজনের জন্যই পুরো ইন্ডাস্ট্রির এই বদনাম হচ্ছে। এই অভিনেত্রী আরও বলেন, ‘আমরা যে থালায় খাচ্ছি, সেই থালাকেই ফুটো করছি।’ জয়া বচ্চনের এই মন্তব্যের পর ফোঁস করে ওঠেন কঙ্গনা রানওয়াত। তিনি সরাসরি তোপ দাগেন জয়াকে। কঙ্গনা ট্যুইটে বলেছিলেন, ‘আমার জায়গায় যদি আপনার কন্যা শ্বেতা থাকতেন, তাঁকেও যদি মারধর করা হত, কিশোরী অবস্থায় টেনে-হিঁচড়ে শ্লীলতাহানি করা হত, তাহলেও কি আপনি এই একই কথা বলতেন? যদি অভিষেক সব সময় হেনস্থার অভিযোগ করতেন এবং একদিন তাঁকে ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া যেত, তাহলেও কি আপনি এই একই কথা বলতেন? আমাদের প্রতিও সমবেদনা জানান।’

আরও পড়ুন: রাজস্থানের চম্বল নদীতে নৌকাডুবির জেরে মৃত্যু হল কমপক্ষে ১৪ জনের

সম্প্রতি সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর তদন্তে বলিউডের ড্রাগ-যোগের বিষয়টি উঠে আসায় অভিনেতা-অভিনেত্রীদের বিরুদ্ধে আঙুল উঠেছে। সে বিষয়েই জয়া বচ্চন তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ‘বিনোদন জগতের মানুষদের সোশ্যাল মিডিয়ায় ভর্ত্সনার শিকার হচ্ছে। যে সব লোকেরা এই ইন্ডাস্ট্রিতে এসেই নাম কামিয়েছেন, তাঁরাই এখন একে নর্দমা বলছেন। আমি এর সঙ্গে একেবারেই সহমত নই। আশা করব, এই ধরনের লোকেদের এই ভাষা ব্যবহার বন্ধ করতে বলবে সরকার।

Related Articles

Back to top button
Close