fbpx
অন্যান্যঅফবিটপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

লকডাউনের জের, হস্তশিল্প ছেড়ে অন্য পেশায় বিশেষভাবে সক্ষমরা

শ‍্যাম বিশ্বাস, উত্তর ২৪ পরগনা: ইলা, শুলতা, সুনিতা, স্বপ্না, জ্যোতি, সীমারা হস্তশিল্প ছেড়ে যুক্ত হয়েছে অন্য পেশায়।  এরা প্রত্যেকেই বিশেষভাবে সক্ষম। বসিরহাট মহকুমার শিল্প- সাথী নামে এই সংস্থায় ৮০০ জন হস্তশিল্পী রয়েছে। এরমধ্যে প্রায় ৪০০ জন বিশেষভাবে সক্ষম শিল্পী রয়েছে। বিভিন্ন শিল্পের সঙ্গে যুক্ত ছিল এরা। কেউ শোলার কাজের সঙ্গে যুক্ত ছিল।  আবার কেউ পাট, মৃৎশিল্পের সঙ্গে যুক্ত ছিল। কেউ আবার সেলাই করতেন।

কিন্তু এই তিন মাস লকডাউনের জেরে বিপাকে পড়েছেন বসিরহাট মহকুমার বিশেষভাবে সক্ষম এই হস্তশিল্পীরা। যারা এক সময় সারা বছর রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় মেলা প্রাঙ্গণে গিয়ে তাদের শিল্পকলা তুলে ধরে জীবিকা নির্বাহ করত, তাঁরা আজ অন্য পেশার সঙ্গে যুক্ত হয়ে পড়েছে। কেউ স্যানিটাইজার, মাক্স তৈরি করছেণ, আবার কেউ বেকার হয়ে ঘরে বসে আছে। যত দিন যাচ্ছে রুজি রোজগার হারাচ্ছে এরা। সব মিলিয়ে যত সময় যাচ্ছে তত অর্থনৈতিক কাঠামো ভেঙে পড়ছে এই সব শিল্পীদের। তাই পেটের জ্বালায় অন্য পেশায় যাওয়ার চিন্তাভাবনা শুরু করেছেন এরা। সরকারের কাছে এরা সাহায্যের হাত বাড়িয়েছেন। ২০০৯ সাল থেকে প্রায় ১১ বছর ধরে নিজেরাই স্বনির্ভর হয়ে স্বামীর পাশে দাঁড়িয়েছিল এদের মধ্যে অনেক বিশেষভাবে সক্ষম মহিলারা। যা আজ বন্ধ। তাই তারা জীবন বাঁচানোর তাগিদে বিভিন্ন পেশায় নিযুক্ত হতে চলেছে, কিন্তু সেখানেও কি সুরাহা পাবে?

Related Articles

Back to top button
Close