fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

মাত্র ৪ দিনের চিকিৎসা, পশ্চিম বর্ধমানে সুস্থ আরও এক করোনা আক্রান্ত

শুভেন্দু বন্দোপাধ্যায়, আসানসোলঃ মাত্র ৪ দিনের চিকিৎসায় সুস্থ হয়ে উঠলেন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত এক রোগী। বুধবার রাতে পশ্চিম বর্ধমান জেলার দূর্গাপুরের কোভিড ১৯ হাসপাতাল থেকে ছুটি হওয়ার পরে আসানসোলের বাড়িতে ফিরে এসেছেন আসানসোলের কেএসটিপির আড্ডা কলোনির বছর ৩০ ঐ মহিলা রোগী। তার সঙ্গে বাড়ি ফিরেছে সদ্যজাতও। এখনো পর্যন্ত এই পশ্চিম বর্ধমান জেলায় করোনা আক্রান্ত হওয়ার পরে দূর্গাপুরের ঐ বেসরকারি হাসপাতাল থেকে চিকিৎসার পরে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন মোট ১০ জন।

জেলা স্বাস্থ্য দপ্তর সূত্রে জানা যায়, ঐ মহিলা গত ১১ মে গর্ভবতী অবস্থায় আসানসোলে ডিভিশনাল রেল হাসপাতালে ভর্তি হন। দুদিন পরে তিনি এক সন্তানের জন্ম দেন। সেদিন কিছু উপসর্গ দেখা দেওয়ায় হাসপাতালের তরফে তার লালারস পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়। সেই পরীক্ষার রিপোর্টে জানা যায়, প্রসূতি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত। তবে সদ্যজাত আক্রান্ত নয়।  ১৭ মে মা ও সদ্যজাতকে রেল হাসপাতাল থেকে দূর্গাপুরের কোভিড ১৯ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। চারদিন পরে বুধবার আবার তার লালারসের নমুনার পরীক্ষা করা হয়। তাতে দেখা যায়, রোগী নেগেটিভ। অর্থাৎ সে মাত্র ৪ দিনেই রোগ মুক্ত হয়েছেন। বুধবার রাতে তাকে হাসপাতাল থেকে ছুটি দিয়ে বাড়ি পাঠানো হয়।
ঐ হাসপাতালের তরফে চিকিৎসক বোনাপার্ট চৌধুরী বলেন, এই প্রথম আমরা সদ্যজাতকে রেখে তার মায়ের করোনা চিকিৎসা করে সুস্থ করলাম। জেলা স্বাস্থ্য দপ্তর জানিয়েছে, প্রসূতি ও তার সদ্যোজাতকে নিয়ম মেনে ৭ দিন হোম কোয়ারান্টাইনে থাকতে হবে। বাড়ির লোকেদেরও তাই।  অন্যদিকে, প্রসূতির বাড়ির এলাকার কাউন্সিলার (আসানসোল পুরনিগমের ২১ নং ওয়ার্ড) বাপি হুইলার এদিন বলেন, ঐ মহিলা বাড়ি ফিরে এসেছেন সুস্থ হয়ে। জেলা প্রশাসন ও স্বাস্থ্য দপ্তরের নির্দেশ মতো বাড়ি ও আশপাশের এলাকা আরো কয়েকদিন সিল করা থাকবে।

Related Articles

Back to top button
Close