fbpx
কলকাতাহেডলাইন

মুখ্যমন্ত্রীর পর পুরমন্ত্রী, ছট পুজোতে সরকারি নির্দেশ মানার আবেদন

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পর এবার রাজ্যের পুর মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম ছট পুজো নিয়ে আদালতে রায় মেনে চলার কথা জানালেন। একইসঙ্গে রবীন্দ্র সরোবরেও ছট পুজো না করার জন্য আবেদন করেন পুরমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘সরকারি নির্দেশ মেনে ছট পুজোর ধর্মীয় আচার পালন করুন। যে সকল কৃত্রিম জলাশয় তৈরি করা হয়েছে সেগুলি ব্যবহার করুন। সেখানে সব ধরণের সু ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। কারুর কোনও অসুবিধা হবে না।’

হাইকোর্টের রায় বহাল রেখে দেশের সর্বোচ্চ আদালতেও। সর্ববচ্চ আদালত সাফ জনিয়ে দিয়েছে রবীন্দ্র সরোর্বর ও সুভাষ সরোবরে কোনও মতেই ছট পুজো করা যাবেনা। হাইকোর্টের নির্দেশের বিরুদ্ধে কেএমডিএ সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিল। কিন্তু কেএমডিএর সেই আর্জি নস্যাৎ করে দেয় মহামান্য সুপ্রিম কোর্ট।  এরপরেই এদিন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এক ভিডিবার্তায় বলেন, ‘ছোট ছোট করে শান্তিপূর্ণভাবে ছটপুজোর আয়োজন করুন। আদালতের নির্দেশ মাথায় রাখবেন, যেভাবে আমরা দুর্গাপুজো বা কালীপুজো করেছি। ছোট ছোট ১৩০০ পুকুর রয়েছে ছটপুজোর জন্য। সেখানে গিয়ে পুজো করুন। ঘরে বসে ছটপুজো করতে বলেছে আদালত। তাই সম্ভব হলে ঘরেই করুন। সম্ভব না হলে পুকুরে বা গঙ্গায় যেখানেই যান ছোট ছোট দলে যান। একসঙ্গে অনেকে মিলে গাড়িতে যাবেন না। ১০-১২ জন করে গাড়িতে যান। স্থানীয় পুলিশ যেভাবে বলছে সেই কথা শুনুন।’ পাশাপাশি সকলকে মাস্ক-স্যানিটাইজার ব্যবহারের পরামর্শও দেন তিনি।

একই সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রীর মত আদালতের রায় মেনে চলার কথা জানান রাজ্যের পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। এদিন তিনি বলেন, ‘আমরা কোর্টের রায়কে মেনে চলার কথাই বলবো। সেই কারণেই আমরা আগে থেকে কৃত্রিম জলাশয় তৈরি করার উদ্যোগ নিয়েছি। সাধারণ মানুষকে অনুরোধ করবো আমরা যেখানে কৃত্রিম ভাবে জলাশয় তৈরি করে দিয়েছে সেখানে ছট পুজো করুন।’ এছাড়া মন্ত্রী জানান, পুরসভার তৈরি করে দেওয়া কৃত্রিম ঘাট গুলিতে শৌচালয় সহ মহিলাদের পোশাক পরিবর্তনের জন্য বিশেষ ব্যবস্থা করা হয়েছে। এছাড়াও বিভিন্ন ঘাট গুলিতে যথাযোগ্য ব্যবস্থা করে দেওয়া হয়েছে যাতে রবীন্দ্রসরোবরে কেউ না আসেন।

Related Articles

Back to top button
Close