fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

লোকাল ট্রেনের পরে এবার জেলার ক্ষেত্রেও নন-সাবার্বান রেল পরিষেবা চালুর অনুমোদন রাজ্যের

অভীক বন্দ্যোপাধ্যায়, কলকাতা: ভ্যাকসিনের অপেক্ষায় আর ঘরে বসে থাকতে নারাজ সাধারণ মানুষ। দীর্ঘ আট মাস ঘরে বসে থাকার পর প্রবল বিক্ষোভ শুরু হওয়ায় শেষ পর্যন্ত প্রথম দফায় রেল মন্ত্রকের সঙ্গে সহযোগিতায় ১১ নভেম্বর শহর এবং শহরতলির জন্য লোকাল ট্রেন চালু করেছে রাজ্য প্রশাসন। এবার রাজ্যের অন্যান্য জেলাতেও ট্রেন চলাচলের অনুমোদন দিল পশ্চিমবঙ্গ সরকার। শনিবার নবান্নে এই সিদ্ধান্ত হলেও এখনও ছাড়পত্র পৌঁছয়নি বলে দাবি করছে রেল কর্তৃপক্ষ।

প্রসঙ্গত, ধীরে ধীরে নিউ নর্মাল পরিস্থিতিতে স্বাভাবিক জীবনযাত্রার দিকে এগোচ্ছেন সাধারণ মানুষ। রাজ্যের সংক্রমণের হার কমে সুস্থতার হার বেড়ে গিয়েছে ৯০ শতাংশের বেশি। তাই লোকাল ট্রেন চালু করার বিষয়ে শেষ পর্যন্ত সিদ্ধান্ত নিতেই হয় রাজ্য প্রশাসনকে। রাজ্যে লোকাল ট্রেন চালু করা প্রথমদিকে কম সংখ্যক লোকাল চালানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হলেও পড়ে সংক্রমণ এড়াতে বেশি সংখ্যক লোকাল ট্রেন চালানোর ছাড়পত্র দেওয়া হয়। এমনকি অফিস টাইমে ৯০% লোকাল চলবে, এটাও জানানো হয়। প্রাথমিক ধাক্কা কাটিয়ে এখন পর্যন্ত ট্রেনে স্বাভাবিক ভাবে যাত্রা শুরু করেছেন মানুষ।

কিন্তু শহর এবং শহরতলির মানুষজনের আপাতত পরিবহণের সমস্যা মিটলেও জেলার মানুষের সমস্যা একই রয়ে গিয়েছে। তারাও ক্রমাগত দাবি করে যাচ্ছিলেন জেলার দিকেও ট্রেন চলাচল চালু করার জন্য। জেলার বহু মানুষই কলকাতায় এসে তাদের রুটি-রুজির সংস্থান করেন। অনেকেরই করোনা পরিস্থিতিতে কাজও চলে গিয়েছে। এই কারণে জেলার সঙ্গে কলকাতার রেল সংযোগ পরিষেবা চালু করা ছিল শুধু সময়ের অপেক্ষা। সেটা ভাবনা চিন্তা করেই এবার চূড়ান্ত অনুমোদন দিল নবান্ন‌। শহর ও শহরতলির ক্ষেত্রে যে কোভিড প্রোটোকল মেনে ট্রেন চালানো হচ্ছে, জেলার ক্ষেত্রেও তেমনটাই করা হবে বলে নবান্ন সূত্রে খবর। তবে এক্ষেত্রেও প্রয়োজনে রেল আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠক করে নেওয়া হবে।

Related Articles

Back to top button
Close