fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

অন্ডালে বিজেপি কর্মীর বাড়িতে ভাঙচুরের অভিযোগের তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে

জয়দেব লাহা, দুর্গাপুর: বিজেপি কর্মীর ওপর হামলার চেষ্টা ও তার বাড়িতে ভাঙ্গচুরের অভিযোগ উঠল তৃণমূল আশ্রিত দুস্কৃতীদের বিরুদ্ধে। সোমবার ঘটনাকে কে কেন্দ্র করে  অন্ডালের ময়রা কোলিয়ারি এলাকায়। যদিও হামলার অভিযোগ অস্বীকার করেছে স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব।

 ঘটনায় জানা গেছে, আক্রান্ত বিজেপিকর্মী গীতা সিং। অন্ডালের ময়রা কোলিয়ারী এলাকার বাসিন্দা। অভিযোগে জানা গেছে, রবিবার স্থানীয় এক তৃণমূলকর্মীর সঙ্গে বিজেপিকর্মী গীতা সিংয়ের  বচসা হয়। পুলিশি মধ্যস্থতায় ওইসময় বিষয়টি মিটে যায়। ওই ঘটনার জেরে সোমবার ফের উত্তপ্ত হয়ে ওঠে এলাকা। এদিন দুপুর নাগাদ তৃণমূলের বেশ কয়েকজন কর্মী গীতা সিংয়ের ওপর হামলার চেষ্টা ও তার বাড়িতে ভাঙ্গচুর করে বলে অভিযোগ ।

গীতা সিং জানান,” আমি বাইক নিয়ে বাড়ি ফিরছিলাম। ওই সময় তৃণমূল আশ্রিত  জনা ২৫ দুষ্কৃতী ভোজালি, টাঙ্গি ও আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে আমার ওপর হামলার চেষ্টা করে। ভয় পেয়ে আমি দ্রুত বাইক চালিয়ে দক্ষিণখন্ড গ্রামের আগুরি পাড়ায় এক পরিচিতের বাড়িতে আশ্রয় নি। তারপর আমাকে না পেয়ে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা আমার বাড়িতে হামলা চালায়। টিভি, ফ্রিজ, আলমারি ভাঙচুর করে। মেয়ের বিয়ের জন্য বাড়িতে রাখা সোনার অলংকারও দুষ্কৃতীরা নিয়ে পালায়।”

স্থানীয় বিজেপির মন্ডল সভাপতি জয়ন্ত মিশ্র জানান,” গীতা সিং খুব ভাল সংগঠক। গত একবছর ধরে তার ওপর নানানাভাবে আক্রমন করা হচ্ছে। এর তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি।”

যদিও অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূলের স্থানীয় নেতৃত্ব। তৃণমূলের পক্ষে অনন্ত ঘোষ জানান, “এই ঘটনার সঙ্গে দলের কোনো যোগ নেই। টাকা পয়সা লেনদেন সংক্রান্ত কোন বিবাদের ঘটনা। বিজেপি অযথা রাজনৈতিক রং চড়াচ্ছে।” এদিকে ঘটনার পর এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে অন্ডাল থানার পুলিশ এসে পরিস্থিতি সামাল দেয়। পুলিশ জানিয়েছে, “পরিস্থিতি স্বাভাবিক। এলাকায় পুলিশ মোতায়ন রয়েছে। এখনও কোন লিখিত অভিযোগ জমা পড়েনি।”

Related Articles

Back to top button
Close