fbpx
গুরুত্বপূর্ণদেশহেডলাইন

কেরলে বিমান দুর্ঘটনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ২২, ঘটনার তদন্তে জোড়া বিশেষজ্ঞ দল গঠন কেন্দ্রের

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: গতকাল ভয়াবহ বিমান দুর্ঘটনা ঘটে কেরলের কোঝিকোড়ে। বিমানবন্দরে অবতরণের সময় রানওয়ে থেকে ছিটকে যায় এয়ার ইন্ডিয়া এক্সপ্রেসের একটি যাত্রীবাহী বিমান। দুর্ঘটনাগ্রস্ত বিমানে ১৮৪ জন যাত্রী ছিলেন। এর মধ্যে ১০ শিশু আছে।

&

;

এ ছাড়া ছিলেন ২ জন পাইলট এবং ৫ জন কেবিন ক্রু। সেটি দুবাই থেকে ফিরেছিল। ঘটনাস্থলে পৌঁছে গিয়েছে দমকল এবং উদ্ধারকারী দল। পাঠানো হয়েছে NDRF-এর জওয়ানদের। উদ্ধারকাজ চলছে।

মন্ত্রী হরদীপ সিং পুরি জানান, কেরলের এই দুর্ঘটনা নিয়ে সরকারি তদন্ত করা হবে। এই নিয়ে এয়ারক্র্যাফ্ট অ্যাক্সিডেন্ট ইনভেস্টিগেশন ব্যুরোকে তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। কী কারণে এই ঘটনা ঘটেছে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

কোঝিকোড়ের দুর্ঘটনায় বিমানের ২২ জন মারা গিয়েছেন, যাদের মধ্যে দুই পাইলটের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে, এয়ার ইন্ডিয়া এক্সপ্রেস কর্তৃপক্ষ। নিহত পাইলটদের নাম উইং কমান্ডার ক্যাপ্টেন দীপক বসন্ত সাথে এবং ক্যাপ্টেন অখিলেশ। নিহত পাইলটদের পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হচ্ছে বলেও জানিয়েছে তারা।

ইতিমধ্যেই প্লেনের ককপিট থেকে সবরকম তথ্য সংগ্রহের জন্য সিআরপিএফ-কে নিয়োগ করা হয়েছে। তাঁরাই ফ্লাইট কল হিস্ট্রি, ব্ল্যাকবক্স, কল রেকর্ডার প্রভৃতি উদ্ধার করে ব্যুরোর হাতে তুলে দেওয়া হবে। এই ঘটনার পর রাতের দিকেই কেন্দ্রীয় বিমান মন্ত্রক এয়ার ইন্ডিয়া ও ডিজিসিএ-এর কর্তারা এক উচ্চপর্যায়ের বৈঠকে বসেছেন। পরবর্তী পদক্ষেপ কী হবে তা নিয়েই এই বৈঠক বসে। রাত পর্যন্ত এই বৈঠক চলছে বলেই জানা গিয়েছে।

এর পাশাপাশি দুর্ঘটনার তদন্তে দু’টি দল গঠন করেছে কেন্দ্রীয় বিমান পরিবহন মন্ত্রক। এয়ার ইন্ডিয়া, AAI এবং AAIB-র বিশেষজ্ঞরা এই দলে আছেন। দুটি দল আজ রাতেই ঘটনাস্থলের উদ্দেশে রওনা দেবে।

 

জানা গিয়েছে, দুর্ঘটনার সঙ্গে সঙ্গেই শারজা, দুবাই ও আমিরশাহীতে হেল্পসেন্টার খোলা হয়েছে। দুর্ঘটনার কবলে পড়া প্রিয়জনদের সম্পর্কে খোঁজখবর নিতে এয়ারপোর্ট কন্ট্রোল নাম্বার ও হেল্পলাইন নাম্বারে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে। এয়ারপোর্ট কন্ট্রোল নাম্বারগুলি হল ০৪৮৩ ২৭১ ৯৪৯৩। এছাড়াও হেল্পলাইন নাম্বার হল, ০৫৬ ৫৪৬ ৩৯০৩, ০৫৪৩০৯০৫৭২, ০৫৪৩০৯০৫৭২।

Related Articles

Back to top button
Close