fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

স্ত্রীকে পিটিয়ে খুনের অভিযোগ স্বামীর বিরুদ্ধে

অমিতাভ মণ্ডল, ডায়মন্ড হারবার:‌ বাপের বাড়ি থেকে টাকা আনার জন্য চাপ দিত নেশাগ্রস্থ স্বামী। স্ত্রী কয়েকবার টাকা নিয়েও এসেছিলেন। পরে টাকা চাইতে রাজি না হওয়ায় স্ত্রীকে পিটিয়ে খুনের অভিযোগ উঠল স্বামীর বিরুদ্ধে। মৃত কাশ্মীরা বিবি (‌২২)‌ দক্ষিণ শহরতলির বিষ্ণুপুরের জলিলপুরের বাসিন্দা। ঘটনার পর থেকে পলতাক স্বামী মতিবুর ইসলাম সিপাই-‌সহ শ্বশুর বাড়ির লোকেরা। এই ঘটনায় পুলিশ খুন, বধূ নির্যাতন-‌সহ একাধিক ধারায় মামলা রুজু করেছে। ঘটনায় মোট অভিযুক্ত ৬ জনের খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ। শনিবার ডায়মন্ড হারবার হাসপাতাল মর্গে কাশ্মীরার দেহের ময়নাতদন্ত হয়।

কাশ্মীরা ও মতিবুর একই গ্রামের বাসিন্দা। গত ৮ বছর আগে প্রেম করে বিয়ে হয়। তখন নাবালিকা ছিলেন কাশ্মীরা। এই বিয়ে মেনে নেয়নি পাত্রীর পরিবারের লোকেরা। মতিবুর কোন কাজ করত না। নিত্যদিন নেশা করে এসে স্ত্রীকে মারধর করত বলে অভিযোগ। পরে কাশ্মীরা বাপেরবাড়িতে যাতায়াত শুরু করেন। এরপর থেকে বাপেরবাড়ি থেকে টাকা আনার জন্য স্ত্রীকে চাপ দিতে থাকে স্বামী। বেশ কয়েকবার টাকা নিয়েও এসেছে। কিন্তু চাহিদা দিন দিন বাড়তে থাকে। দম্পতির ৩ সন্তানও হয়। স্বামী-‌স্ত্রীর মধ্যে গন্ডগোল লেগেই থাকত।

গত বৃহস্পতিবার নেশাগ্রস্থ অবস্থায় স্ত্রীকে ব্যাপক মারধর করে। এক প্রতিবেশী মারফত খবর পায় কাশ্মীরার বাপেরবাড়ির লোকজন। দাদারা বোনকে নিয়ে হাসপাতালে যেতে চাইলে বাধা দেওয়া হয়। এমনকি ব্যাপক মারধর করে বলে অভিযোগ। কাশ্মীরার এক দাদার মাথা ফেটে যায়। এরপর গ্রামবাসীদের সাহায্যে কোনক্রমে অসুস্থ বোনকে নিয়ে বেরিয়ে আসেন। ভর্তি করা হয় ডায়মন্ড হারবার জেলা হাসপাতালে। শুক্রবার বিকেলে অবস্থার অবনতি হয়। কলকাতায় রেফার করে হাসপাতাল। কলকাতার হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে মৃত্যু হয় কাশ্মীরার।

Related Articles

Back to top button
Close