fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

মাতলা নদীর চরে অবৈধভাবে ম্যানগ্রোভ কাটার অভিযোগ, গ্রেফতার ৩

বাবলুপ্রামাণিক, দক্ষিণ ২৪ পরগনা: মাতলা নদীর চরে অবৈধভাবে ম্যানগ্রোভ কাটার ঘটনায় তিন জনকে গ্রেফতার করল পুলিশ।
দক্ষিণ ২৪ পরগনার সুন্দরবনের ক্যানিং মহকুমা দিনের পর দিন অবৈধ ভাবে আইনকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে বেশ কিছু অসাধু লোকজন

ম্যানগ্রোভ গাছ ধ্বংস করে অবৈধ মাছের ভেড়ি এবং জবরদখল করে চলেছে। এমনকি ক্যানিং মাতলা নদীর চর চুরি হচ্ছে প্রায় দিন। বেশ কিছু অসাধু লোকজন মাতলা নদীর চরে ম্যানগ্রোভ ধ্বংস করে জবরদখল করে ঘরবাড়ি বসিয়ে লক্ষ লক্ষ টাকা মুনাফা লুঠছে। আর এই সব ঘটনা পুলিশ প্রশাসনের নজরে আসতে নড়েচড়ে বসলেন বিভাগীয় দফতরগুলি। ইতিমধ্যে পুলিশ প্রশাসন তদন্ত শুরু করেছে এই সব ঘটনার পিছনে কারা কারা জড়িত। আর তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার তোড়জোড় শুরু করেছে পুলিশ প্রশাসন। এমনকি ক্যানিং মাতলা নদীর চরে আইনকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে ম্যানগ্রোভ ধ্বংস করে নদীর চর চুরি করে অবৈধ ঘরবাড়ি তৈরির ঘটনায় জড়িত থাকা মাতলা ও দিঘীরপাড় অঞ্চলের বেশ কিছু প্রভাবশালী লোকজন গ্রেফতার হতে পারে বলে প্রশাসন সূত্রে খবর।

ইতিমধ্যে সোমবার মাতলা নদীর চরে আইনকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে ম্যানগ্রোভ ধ্বংস করে মাছের ভেড়ি তৈরি করার অভিযোগে ৩ জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ধৃতদের নাম দুর্গাপদ সর্দার, রবীন সর্দার, মারুফ মিদ্যে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, সোমবার দুপুরে বাসন্তীর কামারডাঙ্গা সরদার পাড়া এলাকায় মাতলা নদীর চরে ম্যানগ্রোভ ধ্বংস করে আইনকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে অবৈধ ভাবে জেসিবি দিয়ে বড় এলাকা জুড়ে বাঁধ দিয়ে অবৈধ মাছের ভেড়ি তৈরি করছিল বেশ কিছু অসাধু লোকজন।
আর এই খবর গোপন সূত্রে পেয়ে বাসন্তীর বিডিও সৌগত সাহা ও বাসন্তী থানার আইসি নেতৃত্বে স্পেশাল পুলিশ টিম অভিযান চালিয়ে ৩ জনকে পুলিশ গ্রেফতার করে এবং জেসিবি টি আটক করে।এই ঘটনায় পুলিশ ধৃতদের বিরুদ্ধে মামলা রুজু করে তদন্ত শুরু করে। যার কেস নম্বর ৭০১/২০ইউ/এস ৪২৭/৪৩০/৪৩১ আইপিসি এবং ডব্লুবিএলআর আইনের সেকশন ৪ এবং পশ্চিমবঙ্গ গাছ সংরক্ষণ ও সংরক্ষণ আইন ২০০৬ এর সেকশন ৪।

পুলিশ জানান, মাতলা নদীর চরে ম্যানগ্রোভ গাছ ধ্বংস করে জেসিবি দিয়ে বাঁধ দিয়ে অবৈধ মাছের ভেড়ি তৈরি করার ঘটনায় ৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে এবং জেসিবি টি আটক করা হয়েছে। ধৃতদের বিরুদ্ধে মামলা রুজু করে তদন্ত শুরু করা হয়েছে। এই ঘটনায় আর কারা কারা জড়িত আছে সে বিষয়ে খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

Related Articles

Back to top button
Close