fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

পঞ্চায়েতের টাকা কারচুপি করার অভিযোগ উঠল গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান এর বিরুদ্ধে

মিল্টন পাল, মালদা: কাজ না করে, অর্ধেক কাজ করে পঞ্চায়েত থেকে টাকা তুলে নেওয়ার অভিযোগ উঠল মালদা তৃণমূল পরিচালিত পুরাতন মালদার যাত্রা ডাঙ্গা গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান এর বিরুদ্ধে। অভিযোগ করলেন যাত্রা ডাঙ্গা গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রাক্তন তৃণমূল সদস্য ও স্থানীয় তৃণমূল নেতারা। তারা প্রথমে পুরাতন মন্দির বিডিওর কাছে অভিযোগ জানায়।  কিন্তু কোন লাভ না হওয়ায় অবশেষে জেলাশাসকের দ্বারস্থ হন।

দলীয় প্রধানের বিরুদ্ধে দলের জনপ্রতিনিধি ও প্রাক্তন জনপ্রতিনিধিদের অভিযোগের ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। যদিও সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছেন গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান। অভিযোগের তদন্ত নিরপেক্ষভাবে করার দাবি জানিয়েছে বিজেপি।

পুরাতন মালদার যাত্রা ডাঙ্গা গ্রাম পঞ্চায়েত। এই গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রাক্তন তৃণমূল সদস্য রাকেশ আলীর অভিযোগ রাস্তা নির্মাণের কাজ না করে প্রায় তিন কোটি টাকা তছরুপ করেছে প্রধান নূর হক। কোনও কাজ করা হয়নি আবার কোনও কাজ অর্ধেক অবস্থা করে সেই টাকা তুলে নেওয়া হয়েছে। একই অভিযোগে গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান এর বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন পুরাতন মালদার তৃণমূল নেতা মুখলেসুর রহমান।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, গ্রামের রাস্তা গুলির জন্য টাকা বরাদ্দ করা হয়েছিল। কিন্তু কয়েক মাস যেতে না যেতেই দেখা যায় রাস্তার অর্ধেক কাজ কোথাও হয়েছে আবার কোথাও কোনো কাজই হয়নি। অথচ পঞ্চায়েত থেকে টাকা তুলে নেওয়া হয়েছে। কিছু জিজ্ঞাসা করতে গেলে হুমকি দেওয়া হচ্ছে।

যদিও প্রধান নূর হক বলেন সমস্ত অভিযোগ ভিত্তিহীন। কাজ বরাদ্দ হয়েছে সময়মতো কাজ করা হবে। শুধুমাত্র সিমেন্ট বালির টাকা দেওয়া হয়েছে সম্পূর্ণ টাকা এখনও দেওয়া হয়নি।

দলীয় প্রধানের বিরুদ্ধে দলীয় সদস্যদের এই অভিযোগের ঘটনায় ব্যাপক অস্বস্তিতে জেলা তৃণমূল নেতৃত্ব। তৃণমূলের মালদা জেলা কার্যকরী সভাপতি দুলাল সরকার বলেন, অভিযোগ খতিয়ে দেখে প্রশাসন ব্যবস্থা নেবে। ঘটনার নিরপেক্ষ তদন্তের দাবি জানিয়েছে বিজেপির মালদা জেলা সহ-সভাপতি অজয় গঙ্গোপাধ্যায়।

Related Articles

Back to top button
Close