fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

ভাতারে আমফান ক্ষতিপূরণ নিয়ে অনিয়মের অভিযোগ

জেলা প্রতিনিধি, ভাতার: ভাতারে আমফান ঝড়ে ক্ষতিপূরণের জন্য ক্ষতিগ্রস্থ গোয়ালঘর ও পোলট্রি ফার্ম নিয়ে মোট ২৬ জনের নামের তালিকা উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের কাছে পাঠানো হয়েছিল। তাদের ক্ষতিপূরণের অর্থ বরাদ্দও করা হয়। মাস তিনেক আগে সেই টাকা চলেও আসে বলে খবর। কিন্তু এযাবৎ তাঁরা ক্ষতিপূরণের টাকা হাতে পাননি বলে অভিযোগ। এই ঘটনায় ক্ষতিপূরণের নিয়ে অনিয়মের অভিযোগ তুলেছেন ওই সমস্ত উপভোক্তারা।

বৃহস্পতিবার তাঁরা ভাতার ব্লক প্রাণীসম্পদ বিকাশ আধিকারিকের কাছে এই নিয়ে অভিযোগ জানান। পাশাপাশি ভাতারের বিডিওর কাছে অভিযোগের প্রতিলিপি জমা দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে অভিযোগকারীরা।

জানা গেছে, আমফান ঝড়ে মাঠের ফসলের পাশাপাশি গোয়ালঘর ও পোলট্রি ফার্মেও ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়। ওই সমস্ত ক্ষতিগ্রস্থদের জন্য ক্ষতিপুরন দেওয়ার কথা সরকারিভাবে ঘোষণা করা হয়েছিল। ভাতার ব্লকের বিভিন্ন গ্রামে এরকম ২৬ জনকে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। সেই মত ভাতার ব্লক প্রাণীসম্পদ বিকাশ দফতরের অফিস থেকে তাদের তালিকা তৈরি করে পাঠানো হয়েছিল। কিন্তু এযাবৎ তারা ক্ষতিপুরন পাননি বলে অভিযোগ। এদিন তাঁরা ব্লক প্রাণী সম্পদ বিকাশ আধিকারিকের দ্বারস্থ হন।

আরও পড়ুন: জন্ম শতবর্ষে রাষ্ট্রঋষি দত্তপন্তে ঠেঙড়ি

উপভোক্তাদের মধ্যে মধ্যে অয়ন ঘোষ, সঞ্জিত দাস,আবদুল রউফ,রঞ্জিত কুমার ঘোষরা বলেন, “আমরা জানতে পারি আমাদের ২৬ জনেরই ক্ষতিপুরণে টাকা চলে এসেছে। কিন্তু এযাবৎ আমরা কেউ টাকা পাইনি। তাহলে ওই টাকা গেল কোথায় ? আমাদের অনুমান ওই টাকা তছরূপ করা হয়েছে৷ তাই এদিন সংশ্লিষ্ট দফতরের আধিকারিকের দ্বারস্থ হয়েছি। পাশাপাশি বিডিওকেও বিষয়টা জানিয়েছি৷”

যদিও এই বিষয়ে কোনও মন্তব্য করতে রাজি হননি ভাতার ব্লক প্রাণীসম্পদ বিকাশ আধিকারিক শঙ্খ ঘোষ। তিনি বলেন, “এই বিষয়ে যা বলার উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ বলবে। আমার কিছু জানা নেই।”

Related Articles

Back to top button
Close