fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

ঘুমন্ত অবস্থায় বৃদ্ধ দম্পতিকে মাথায় আঘাত করে খুন লাভপুরে

নিজস্ব সংবাদদাতা, বোলপুর: ঘুমন্ত অবস্থায় স্বামী স্ত্রীকে মাথায় আঘাত করে খুনের ঘটনা ঘটেছে লাভপুর থানার ব্রাহ্মনপাড়া গ্রামে। পুলিশের প এই খুনের ঘটনার সঙ্গে জমিজমা সংক্রান্ত বিবাদকে সামনে রেখে পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে। এই ঘটনায় বাড়ির কাজের চার সহ মোট সাত জন গ্রামবাসীকে লাভপুর থানায় জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ। খুন হলেও বাড়ি থেকে কোন জিনিস চুরি যায়নি।

 

পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, লাভপুরের ব্রাহ্মনপাড়া গ্রামে গত ৬-৭ বছর ধরে থাকছিলেন পূর্নেন্দু চ্যাটার্জী(৭৭) এবং স্বপ্না চ্যাটার্জী(৬৭)। পূর্নেন্দুবাবু আসানসোলের সুভাষপল্লী বিদ্যানিকেতন বিদ্যালয়ের শিক্ষক ছিলেন। স্বপ্না দেবী আসানসোলে রেলে কর্মরত ছিলেন। তাদের একমাত্র সন্তান কল্লোল চ্যাটার্জী বর্তমানে আসানসোলে গাড়ির ব্যবসা করেন। স্বপ্না দেবী অবসর নেওয়ার পর পূর্নেন্দু বাবুকে নিয়ে তার বাপের বাড়ি ব্রাহ্মনপাড়া গ্রামে চলে আসেন। পরে তার বাবা মা মারা যাওয়ার পর তারা পাকাপাকি ভাবে ব্রাহ্মনপাড়াতে থাকতে শুরু করেন।

 

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, শুক্রবার সকালে কাজের লোক ডাকাডাকি করে সারা না পেয়ে প্রতিবেশিদের ডাকে। পরে প্রতিবেশীদের একজন বাড়ির মধ্যে ঢূকে জানলা দিয়ে দেখে বিছানার মধ্যে দুজনে শুয়ে রয়েছেন। পরে লাভপুর থানার পুলিকে খবর দিলে পুলিশ তালা ভেঙে দেখে শোবার ঘরে দুজলে মৃত অবস্থায় পড়ে আছে। তাদের মাথার পিছনে আঘাতের চিহ্ন। গভীর ক্ষত এবং অতিরিক্ত রক্ত ক্ষরনের জন্য এই মৃত্যু বলে জানা গিয়েছে।

 

কল্লোল চ্যাটার্জী বলেন, বাবা মা কে কে খুন করে জানি না। বাড়ি থেকে কোনও জিনিস চুরি যায়নি। তাই এটা পরিকল্পনা করে খুন। গত রবিবার বাবা মাকে দেখে গিয়ে ছিলাম। জেলা পুলিশ সুপার শ্যাম সিং বলেন, খুনের তদন্ত চলছে। শনিবার ফরেন্সিক দল আসবে।

Related Articles

Back to top button
Close